পাতা:রাজা ও রাণী-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/৩৩

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


প্রথম অঙ্ক বিক্রম । হায় কষ্ট মানবজীবন ! পদে পদে নিয়মের বেড়া । আপন রচিত জালে আপনি জড়িত। অশান্ত আকাজক্ষা পার্থী মরিতেছে মাথা খুড়ে পঞ্জরে পিঞ্জরে । কেন এ জটিল অধীনতা ? কেন এত আত্মপীড়া ? কেন এ কৰ্ত্তব্য কারাগার ? তুই সুখী অয়ি মাধবিক ! বসন্তের আনন্দমঞ্জৰী ! শুধু প্রভাতেব আলো, নিশির শিশিব, শুধু গন্ধ, শুধু মধু, শুধু মধুপেব গান—বায়ুর হিল্লোল— স্নিগ্ধ পল্লব শয়ন,—প্রস্ফুট শোভায় সুনীল আকাশ পানে নীববে উত্থান, তা’র পরে ধীরে ধীরে খাম দূৰ্ব্বাদলে নীরবে পতন । নাই তর্ক, নাই বিধি, নিদ্রিত নিশায় মৰ্ম্মে সংশয় দংশন, নিরাশ্বাস প্রণয়ের নিষ্ফল আবেগ ! সুমিত্রার প্রবেশ এসেছ পাষাণি ! দয়া হয়েছে কি মনে ? হ’ল সার। সংসারের যত কাজ ছিল ? ‘মনে কি পড়িল তবে অধীন এ জনে সংসাবের সব শেষে ? জাননা কি, প্রিয়ে, " সকল কর্তব্য চেয়ে প্রেম গুরুতর ? প্রেম এই হৃদয়ের স্বাধীন কৰ্ত্তব্য । সুমিত্রা । হায়, ধিক্ মোরে ! কেমনে বোঝাব, নাথ,