পাতা:রাজা ও রাণী-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/৮৬

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


রাজা ও রাণী ধন্ত, ভাই, ধন্ত তুমি ! সপিলাম এ জীবন মোর তোমার লাগিয়া ! তোমার এ স্নেহখণ প্রাণ দিয়ে কেমনে করিব পরিশোধ ? বীর তুমি, মহাপ্রাণ, তুমি নরপতি এ নরসমাজ মাঝে — আমি ভাই তোর ! চল বোন, আমাদের সেই শৈলগৃহে তুষারশিখরঘেরা শুভ্র স্বশীতল আনন্দ-কাননে । তুটি নিঝ রেব মত একত্রে করেছি খেলা দুই ভাই বোনে, —- এখন অবি কি ফিরে যেতে পারিবিনে সেই উচ্চ, সেই শুভ্র শৈশব-শিখরে ?, চল, ভাই চল । ষে ঘরেতে ভাইবোনে করিতাম খেলা, সেই ঘরে নিয়ে এসে। প্রেয়সী নারীরে ;–সন্ধ্যাবেল বসে’ তা’রে তোমার মনের মত সাজাব যতনে । শিখাইয়া দিব তা’রে তুমি ভালবাস কোন ফুল, কোন গান, কোন কাব্য-রস । শুনাব বাল্যের কথা ; শৈশব-মহত্ত্ব তব শিশু-হৃদয়ের । দোহে শিখিতাম বীণা ৷ আমি ধৈর্য্যহীন যেতেম পালায়ে । তুই শয্যাপ্রাস্তে বসে’ কেশবেশ ভুলে গিয়ে সারা সন্ধ্যাবেল