পাতা:রাজা ও রাণী-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/৮৭

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


চতুর্থ অঙ্ক সঙ্গীতেরে করে তুলেছিলি তোর সেই ছোট ছোট অঙ্গুলির বশ । সুমি । মনে আছে, খেলা হ’তে ফিরে এসে শোনাতে আমারে অদ্ভূত কল্পনা কথা ; কোথা দেখেছিলে অজ্ঞাত নদীর ধারে স্বর্ণ স্বৰ্গপুর ; অলৌকিক কল্পকুঞ্জে কোথায় ফলিত অমৃতমধুর ফল ; ব্যথিত হৃদয়ে সবিস্ময়ে শুনিতাম ; স্বপ্নে দেখিতাম সেই কিন্নর-কানন । কুমার। বলিতে বলিতে নিজের কল্পনা শেষে নিজেবে ছলিত । সত্য মিথ্যা হ’ত একাকার, মেঘ আর গিরির মতন ; দেখিতে পেতেম যেন দুর শৈল-পরপারে রহস্ত নগরী। শঙ্কর আসিছে ওই ফিরে । শোনা যাক কি সংবাদ । শঙ্করের প্রবেশ শঙ্কর । প্রভু তুমি, তুমি মোর রাজা, ক্ষমা কর বৃদ্ধ এ শঙ্করে। ক্ষমা কর রাণি, দিদি মোর ! মোরে কেন পাঠাইলে দূত করে রাজার শিবিরে ? আমি বৃদ্ধ, ' নহি পটু সাবধান বচন-বিষ্ঠাসে, আমি কি সহিতে পারি তব অপমান ?— ზე Երծ