পাতা:রামতনু লাহিড়ী ও তৎকালীন বঙ্গসমাজ.djvu/৩৫৫

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।
২৯৩
একাদশ পরিচ্ছেদ।

চিকিৎসাপ্রণালীর দোষ কীৰ্ত্তন করেন। সেই বাক্যগুলি সুপ্রসিদ্ধ হোমিওপ্যাণ রাজেন্দ্র দত্ত মহাশয়ের চক্ষে পড়ে। ডাক্তার সরকারের সহিত তাহার, পূর্বেই পরিচয় ছিল। তৎপরে উভয়ে সাক্ষাৎ হইবামাত্রই রাজাবাবু ঐ উক্তিগুলি। অবলম্বন করিদ্মা ডাক্তার সরকারের' সহিত বিচার উপস্থিত করেন। এই বিচার বহুদিন চলিতে থাকে। ক্রমে আর এক ঘটনা আাসির উপস্থিত হয়। একজন বন্ধু (Morgan) মর্গান নামক একজন প্রসিদ্ধ চিকিৎসকের লিখিত Philosophy of Homeopathy নামক একখানি পুস্তকের সমালোচনা করিবার জন্য ডাক্তার সরকারকে অনুরোধ করেন। ঐ সমালোচনা ‘Indian Field নামক কিশোরীচাদ মিত্রের সম্পাদিত পত্রিকাতে বাহির করিবার কথা থাকে। কিন্তু পুস্তকধানি মনোযোগ পূৰক পাঠ করিতে গিয়া ডাক্তার সরকার তন্মধ্যে এমন কিছু কিছু কথা পাইলেন, যে বিষয়ে অভিজ্ঞতা বিনা মত প্রকাশ করা কঠিন বোধ হইতে লাগিল! তাহার মনে হইল যে কার্যতঃ হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসার ফলাফল কিছুদিন না দেখিয়া মত প্রকাশ করা প্তাহার পক্ষে কৰ্ত্তব্য নহে। সুতরাং তিনি হোমিওপ্যাথি চিকিৎসার • ফলাফল দেখিবার জন্য রাজাবাবুর শরণাপন্ন হইলেন। রাজাবাবু আনন্দের সহিত তাহাকে সঙ্গে করিরা কতকগুলি কঠিন রোগের চিকিৎয়া দেথাইতে লইয়া গেলেন॥ ডাক্তার সরকার সেই সকল রোগীর অবস্থা ও চিকিৎস৷ বিধিমতে পরীক্ষা করির দেখিতে লাগিলেন এবং ভুল ভ্রান্তি যাহাতে না হয় এরূপ উপার সকল অবলম্বন করিলেন। এই রোগীগুলির চিকিৎসা কাৰ্য্য দেখিতে দেথিতে ডাক্তার সরকারের মত পরিবর্তিত হইয়া গেল। হানিমানের অবলম্বিত প্রণালী যে যুক্তি-সঙ্গত তাহ৷ প্ৰতীতি হইল। এই পরিবর্তন ঘটিতে ঘটিতে, তাহারা ১৮৬৬ সালে উপনীত হইলেন।

অন্য লোক হইলৈ মনের বিশ্বাস মনে রাখির।, আপনার অর্থোপার্জন ও সুথ সচ্ছদের উপার দেখিতেন, কিন্তু; মহেন্দ্রলাল সরকার সে ধাতুর লোক ছিলেন না৷। স্বাহা সত্য বলিয়া একবার প্রতীতি হইত তাহা তিনি। হৃদর মনের সহিত অবলম্বন করিতেন।; তাহ প্রকাশ বা প্রচার করিতে কুষ্টিত হইতেন ’ না৷; অথবা,সত্যাবলম্বন বিষয়ে ক্ষতি লাভ, বা লোকের অনুবাগ বিরাগের ভঃ করিতেন না। তাহার সেই প্রকৃতি অনুসারে, যখন। তাহার মত পরিবর্তন হইল। তখন তিনি তাহা তাহার চিকিৎসকবন্ধগণের নিকট ব্যক্ত করিবার জন্য ব্যগ্ৰ হইলেন।