পাতা:রামতনু লাহিড়ী ও তৎকালীন বঙ্গসমাজ.djvu/৩৯৩

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।
৩২৭
একাদশ পরিচ্ছেদ।

এরং ১৮৮৯ সালে যখন ভারতবর্ষীয় ব্রহ্মমন্দিরের প্রতিচ্ছ৷ হয়, তখন জপর। কতিপয় বন্ধুর সহিত ব্রাহ্মধর্মে দীক্ষিত হন।

 কালেজ হইতে উত্তীৰ্ণ হইয়:ই. তিনি এঞ্জিনিয়ারিং কলেজে অশ্বাস্ত্রের, প্রোফেদারের, কর্ম পার!!, এই কৰ্ম্ম করিতে করতে তিনি রাজশ্চাদ”প্রেমৰ্চা বৃত্তি লাভ করেন; এবং সেই বৃত্তিবু টাকা বৃথ৷ ব্যবহার না করিয়া ইংলওগমনে ও নিজ শিক্ষার উন্নতিবিধানে নিয়োগ করিবার জন্তাকৃতসংকল্প হন। ১৮৭০ সালে কেশবচন্দ্র সেন মহাশূন্য যখন। বিলাতঘাত্রা করেন, তখন আনন্দমোহন ত৷হার সমভিবাহারী হন। ১৮৭৪ পর্যন্ত ইংলঙে থাকিয়া তিনি কেম্বিজ বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়ন করেন এবং তথ্যকার সর্বাচ্চ র্যাগলার উপাধি লাভ করেন। সেখানে বাস কালে তিনি যে কেবল বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা লইয়ই ব্যস্ত থাকিতেন তাহ। নহে। ভলণ্টিয়ার দলে প্রবেশ করিয়। যুদ্ধবিদ্যা শিক্ষ৷ করিতেন; ভারতহিতৈষী ফঃসট প্রভৃতির সহিত মিলিয়া ভারতীয় রাজনীতির আলোচনা করতেন; সভাসমিতিতে রাজনীতি বিষয়ে বক্ত, তাদ করি-তন; সুরাপাননিবাঁরিণী সভার সহিত যোগ দিয়া৷ আরাধানের বিরুদ্ধে সমর ঘোষণা করিতেন; এবং সর্বপ্রকারে আপনার হৃদয় মনের উন্নতিবিধানে নিযুক্ত থাকিতেন।

 ১৮৭৪ সালে তিনি বাঁৱিষ্টারি পরীক্ষাতে উত্তীর্ণ হইয়া দেশে ফিরিলেন। ফিরিয়া দেখেন, ব্রাহ্মসমাজে ভাবার সমর-ইন্দুভি বাঠি তেছে। খ্রীস্বাধীনতার আন্দোলন ও সমজের কার্যো নিমতন্ত্ৰ প্ৰণালী স্থাপনের আা:নাগন উঠিয়াছে। কিন্তু ওদংক যুকদলের উপরে ব্রাহ্মসমাজের শক্তি হ্রাস হইতেছে। কেশবচন্দ্র সেন মহাশয়” যুবক দলের নেতৃত্ব হইতে অবসৃত হইয় যোগ, ভক্তি, রৈরাগ! প্রভৃতি লইয়া একান্তে সরিয়া পড়িতেছেন। ধভুজ মহাশয় এই অবস্থাতে প্রথমে ছাত্রদলকে’ এইয়া কাৰ্য্য আরম্ভ করিলেন। ছাত্রদিগের জ্য একটী সভাস্থাপন করিয়া বিবিধপ্রকারে তাহাদের উতিবিধানে নিযুক্ত হইলেন। অপরদিকে ব্রাহ্মনমাজের খ্রীস্বাধীনতাপক্ষীয় ও নিরমতন্ত্ৰ-পঙ্গীয় ব্যক্ৰিগণের সহিত মিলিত হইয়া উক্ত উভয় বিষয়ে সাহায্যকরিতে লাগিগেন তাহার ও স্বগীয় টুর্গান্দেহন যাদের সাহায্যে র্ঘাঁৰাধীনতাপনীয়গণের পূর্বপ্রতিষ্ঠিত ভারতমহিলা বিদ্যালয় পরিবপ্তিষ্ঠ হইয়া-ৰঙ্গমহিলাবিদ্যালয় নাম ধারণ করিল, এবং মহিলাগণের উচ্চশিক্ষার ব্যবস্থা করিঙে’ অগ্রসর হইল। এই বঙ্গমছিল! বিiিল পরে বেথুন খুলের সহিত মিলিত হইইবেথুন কালেক্সপোশরিণতহাংt,