পাতা:রামতনু লাহিড়ী ও তৎকালীন বঙ্গসমাজ.djvu/৪৭৩

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা হয়েছে, কিন্তু বৈধকরণ করা হয়নি।
৩৯১
অতিরিক্ত পত্র।

যেন তাহার । কৰ্ণকুহরে আঘাত লাগিল। বৃদ্ধ বয়সে বালকের ষ্ঠায় নিদ্র" যাইতেন । রাত্রিতে কেম্য ঘুমাইয়াছিলেন এ কথা জিজ্ঞাসা করিলে হাসতে | হাসতে বলিতেন একবারও পাশ ফিরিতে হয় নাই।

 ১৭। যতক্ষণ জাগিয়া থাকিতেন কখন নিষ্কৰ্মা থাকিতেন না ; কোন না । কোন কাৰ্য্যে ব্যস্ত থাকিতেন।. পত্র লেখা, Diary লেখা, অভ্যাগত বন্ধু গণের সহিত আলাপ করাশিশুসন্তানদের সহিত থেলা এবং কাক ও চড়াই পাখীদের রূটীর টুকরো খাওয়ান, এমনতর একটা না একটা৷ কাৰ্য্যে ব্যাপুত থাকিতেন। যদি কোনও কৰ্ম্ম করিতে অক্ষম হইতেন তবে বন্ধুগণের বিষয় চিন্তা করিতেন । ৮ামগোপাল ঘোষ মহাশয় তাহার সহধ্যায়ী বাল্যবন্ধু ছিলেন। তাহার সহিত গাঢ় হৃষ্ঠত৷ ছিল। । শুনিয়াছি যে রামগোপাল বাবুর মৃত্যুশয্যার পাশে বসিয়া তিনি বালকের ত্যায় বাদিয়া ফেলিয়াছিলেন। উক্ত মহোদয়ের মৃত্যুর পর তাহার সম্মানাথ বে সভা হয় তাহাতে অনেক বিশিষ্ট ব্যক্তি বতা করেন, তন্মধ্যে রামতন্তু বাবুর বক্ততা সর্বোৎকৃষ্ট • হইয়াছিল। রসিককৃষ্ণ মল্লিক নামক তাহার অত্য এক বন্ধুর উপর তাহার সাতিশম শ্ৰদ্ধা ও ভক্তি ছিল। তাহাকে গুরুত্ব ত্যায় দেখিতেন এবং তাহার শিক্ষক’ ডিরোজিও সাহেবের প্রশংসা তাহার মুখে ধরিত না।

 ১৮। এত লোক তাহার সহিত সাক্ষাৎ করিতে আসিত। অভ্যাগত ব্যক্তির প্রতি ৬াহার বড় অমায়িক ভাব ছিল। । তাহাদেম নাম, বড়ী আর কি উপাক্ষে কোন স্থানে তাহাদের সঙ্গে প্রথম সাক্ষাৎ হয় এত সমাচার কি করিয়া তাহার মনে থাকিত বলিতে পারি না। একদিন দুইতিনটী ব্যক্তি তাহর সহিত সাক্ষাৎ করিঙে আসেন। তাহাদের দেখিয়া, তিনি একটু ফু৷ । হইয়া বলিলেন তোমাদের চিনিয়াছি কিন্তু নাম মনে পড়ে না। তোমরা বরিশাল স্কুলে কোন কেলাসে পড়িতে। টাস্তায়া বলিলেন তৃতীয় শ্রেণীতে । প্রায় ২৭ বৎসরের পর তাহার সাক্ষাৎ করিতে আসিয়াছিলেন ।  ১৯। উীহার মুখমণ্ডল সন্দা। আনন্দপূর্ণ থাকিত দেখিলে বোধ হইত যেন আনন্দ উথলিয়া পড়িতেছে, হৃদয়ে ধরে না। সংসারিক বেদনা তাহার ভাগ্যে কিছু কম পরিমাণে পড়ে নাই।'. অভিভূত করা দূরে থাকুক উহ৷ তাহাকে পর্শও করিতে পারিত না। আমি দুরে থাকিলে আমাকে পত্র লিথিতেন। ; এখানি চিঠি-কাগজ লইয়া তাহাতে প্রত্যহ থানিক খাঁসিক লিথিতেন। চারি পৃষ্ঠা পূর্ণনা হইয়া গেবে, পত্র ডাকে দিতেন না। এমন এক