পাতা:রামতনু লাহিড়ী ও তৎকালীন বঙ্গসমাজ.djvu/৪৭৪

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা হয়েছে, কিন্তু বৈধকরণ করা হয়নি।
৩৯২
 অতিরিক্ত পত্র ।

পত্রে এই সমাচার পাইলাম -Poor Nebacoomar died yesterday. পত্ৰখানি কয়েকদিন ধরিয়া লিখিতেছিলেন। একদিনের বিবরণে ঐ কথা লেখা ছিল। তাহার পর দুই একদিনের বিবরণ লিখিয়া পত্ৰখানি ডাকে দেন। নবকুমার তাহার জ্যেষ্ঠ পুত্র।

 ২০ । ইংরাজি সাহিত্যের তিনি একজুন উচ্চতর গুণগ্রাহী ছিলেন। ইদানীং নিজে পুস্তক পড়িতে পারিতেন না। পড়িয়া শুনাইলে বড় স্বর্থী হইতেন। কাব্য, নাটক, ইতিহাস, অথবা ধৰ্ম্মশাস্ত্র সকল পুস্তক তাহার নিকট আদরণীয় ছিল। কোন মহৎ ভাব অথবা অসাধারণ সাহস কিম্বা অধ্যবসায়ের বিবরণ শুনিলেই তিনি অমনি সংযত হইয়া বসিতেন ; তাহার মুখমণ্ডল উজ্জল হইয়া উঠিত ; এবং সেই স্থানটা পুনরায় আবৃত্তি করিতে বলিতেন । সময়ে সময়ে ভাবে এত মোহিত হইতেন যে আর শুনিতে পারিতেন না, পাঠ করা বদ্ধ করিতে হইত.

 ২১। মৃত্যুর কয়েক মাস পূৰ্ব্বে এক দিন তাহাকে বিমর্ষ দেখিয়াছিলাম। সাক্ষাৎ করিতে গেলে যেমন আহলাদ প্রকাশ করিয়া নানা প্রসঙ্গে কথোপকথন করিতেন তাহা করিলেন না । দুৰ্ব্বলতা বশতঃ ঐরূপ কাতর হইয়াছিলেন । কি প্রকারে এ জড়তা আগু নষ্ট হয়, এই ভাবিয়া আমেরিকার স্বাধীনতা সম্বন্ধে চ্যাটাম সাহেবের বিখ্যাত বক্তৃতার প্রথম বাক্যটা আবৃত্তি করিলাম। শুনিব। মাত্র তিনি উঠিয়া বসিhেন এবং পরবর্তী দুই তিনটা বাক্য নিজেই আবৃত্তি করিয়া প্রকৃতিস্থ হইলেন ; পরে আমাদের সঙ্গে জনকক্ষণ ধরিয়া নানমিষয়ের কথা কহিয়া বিদায় দিলেন। -

 ২২। রামতনু বাবুর সহিত সাক্ষাৎ করিবার জন্ত তাহার বেলেডাঙ্গার বাটতে কয়েকবার গিয়াছিলাম : সেখানে তাহার কনিষ্ঠ সহোদর প্রকালীচরণ লাহিড়ী ডাক্তার মহাশয় ও তাছার মাতুলপুত্ৰ প্ৰকাৰ্ত্তিকচন্দ্র রায় দেওয়ান মহাশয় দুই জনের সাক্ষাৎ লাভ করিয়াছিলাম। তাছারা কি অমারিক লোক ছিলেন । চিকিৎসা সম্বন্ধে ও প্রদেশে কালীচরণ বাবুস্থ এমন সুখ্যাতি ছিল, যে লোকে ভাবিত তাহার দর্শন পাইলেই রোগীর অৰ্দ্ধেক রোগ আরাম হইয়া যায়। দেওয়ান মহাশয় যেমন স্বত্র ছিলেন তেমনি গুণবানও ছিলেন। অনেক যত্ব সহকারে তিনি গীত বিদ্যা শিখিয়াছিলেন, এবং তঁহার গলাও বড় মধুর ছিল। অনুরোধ করিতেই তিনি গান শুমাইতেন। বঙ্গভাষায় তাহার স্তায় প্রাঞ্জল লেখক অতি বিরল। কৃষ্ণনগর নিবাসী ৮ হরিতায়ণ ভট্টাচাৰ্য্য