প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:রূপান্তর-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.djvu/২৪২

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


গ্রন্থপরিচয় প্রসঙ্গে পরবর্তী আলোচনা ঔৎসুক্যজনক সন্দেহ নাই । শ্ৰীক্ষিতিমোহন সেন ‘तां’ि ( s७8२ ) च८च् शिथिश्नाटघ्न সীমা ও অসীম সম্বন্ধে এইবার দাদু এমন একটি কথা বলিলেন যে র্তাহার সঙ্গে ও এই যুগের মহামনীষী রবীন্দ্রনাথের সঙ্গে দেখা যায় আশ্চর্ধ এক মিল। সীমা-অসীমের নিবিড় যোগের সম্বন্ধে রবীন্দ্রনাথ বলিলেন— ধূপ আপনারে মিলাইতে চাহে গন্ধে, গন্ধ সে চাহে ধূপেরে রহিতে জুড়ে। স্বর আপনারে ধরা দিতে চাহে ছন্দে, ছন্দ ফিরিয়া ছুটে যেতে চায় স্বরে। ভাব পেতে চায় রূপের মাঝারে অঙ্গ, রূপ পেতে চায় ভাবের মাঝারে ছাড়া । অসীম সে চাহে সীমার নিবিড় সঙ্গ, সীমা চায় হতে অসীমের মাঝে হারা । প্রলয়ে স্বজনে না জানি এ কার যুক্তি, ভাব হতে রূপে অবিরাম যাওয়া আসা । বন্ধ ফিরিছে খুজিয়া আপন মুক্তি, মুক্তি মাগিছে বাধনের মাঝে বাসা । সীমা অসীমের নিবিড় প্রেম সম্বন্ধে দাদু কহিলেন, “গন্ধ কহে, হায়, আমি যদি পাইতাম ফুলকে ; ফুল বলে, হায়, আমি যদি পাইতাম গন্ধকে । ভাস ( প্রকাশ, ভাষা ) কহে, হায়, আমি যদি পাইতাম ভাবকে, ভাব বলে, হায়, আমি যদি পাইতাম ভাসকে ৷ রূপ কহে, হায়, আমি যদি পাইতাম সংকে ; সৎ বলে, হায়, আমি যদি পাইতাম রূপকে ! পরস্পরে উভয়েই উভয়কে চায় করিতে পূজা ! অগাধ এই পূজা, অনুপম এই প্রেমের পূজা ।” বাস কহৈ হৌ ফুল কো পাউ ফুল কহৈ হৌ বাস । ভাস কহৈ হীে ভাব কে পাউ ভাব কহৈ হে ভাস ॥ রূপ কহৈ হোঁ সত কো পাউ সত কহৈ হে রূপ। আপস মে দউ পূজন চাহৈ পূজা অগাধ অনুপ ॥ —দাদু, পরিশিষ্ট, পৃ ৬৩৯-৪• &R\2