প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:রূপান্তর-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.djvu/২৫২

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


পাণ্ডুলিপিচিত্রের বিবরণ বেদমন্ত্রান্থবাদ ৷ গীতাঞ্জলি-রচনার সমকালে, বুধবার ২২ অগ্রহায়ণ ১৩১৬ ( ৮ ডিসেম্বর ১৯০৯ ) হইতে ‘সপ্তাহকালে’ যে অনুবাদগুলি লেখা হয় গীতাঞ্জলির খাতায়, তাহারই ২৮ এবং ৩৫ পৃষ্ঠার চিত্ৰ— বর্তমান গ্রন্থে সংকলিত ২-৪ -সংখ্যক অনুবাদ (পৃ ৫ ) এবং ৯-সংখ্যক অনুবাদের শেষাংশ (পৃ ১৫ ) । শাস্তিনিকেতন আশ্রমে বুধবার বিশেষ উপাসনার দিন, ৭ই পৌষের পুণ্যদিনও আসন্ন ছিল, ইহা স্মরণযোগ্য । ধৰ্ম্মপদ ॥ শ্ৰীচারুচন্দ্র বস্থ -সম্পাদিত ধৰ্ম্মপদং গ্রন্থের প্রথম প্রকাশ -কালেই রবীন্দ্রনাথ উহার বিস্তারিত আলোচনা করেন ১৩১২ জ্যৈষ্ঠের বঙ্গদর্শনে ; তাহার নিজের পুস্তকখানির বিভিন্ন পৃষ্ঠার মার্জিনে কালীতে ও পেন্সিলে ছন্দোবদ্ধ অন্তবাদও করেন। উহারই ৯-১০ পৃষ্ঠার চিত্র মুদ্রিত হইল। মননে। মালতীপুথির যে দুই পৃষ্ঠায় রবীন্দ্রনাথ কুমারসম্ভব কাব্যের এই অংশের অমিত্রাক্ষর পয়ারে স্বচ্ছন্দ অনুবাদ করেন, তাহ সম্পূর্ণই প্রতিচিত্রিত হইল । ইহার শেষে অভিজ্ঞানশকুন্তল নাটকের একটি শ্লোকাজুবাদের (বর্তমান গ্রন্থে পৃ ৭৩, সংখ্যা ৪ ) শেষ দুই ছত্রের পাঠান্তরও দেখা যায়। তুকারাম-ভজন। মালতীপুথির অন্যতম পৃষ্ঠার প্রতিচিত্র ; ইহাতে বর্তমান গ্রন্থে সংকলিত (পৃ ১১৯, ১২১ ) ৭-৯ -সংখ্যক কবিতা দেখা যায়। পৃষ্ঠার উপর দিকে বাম কোণ ছিন্ন হওয়ায় সপ্তম কবিতার সম্পূর্ণ পাঠোদ্ধার হয় না, এজন্য নবরত্নমালার পাঠই গ্রন্থে সংকলিত । বিদ্যাপতি-পদ ॥ উনরুত প্রতিচিত্র। রবীন্দ্রসদনে রক্ষিত গ্রীয়র্সন সাহেবের গ্রন্থের বিশেষ বিবরণ অন্যত্র দ্রষ্টব্য। উহার একটি পৃষ্ঠার চিত্রে ৬৫-সংখ্যক পদ এবং ৬৬ -সংখ্যক পদের অধিকাংশ, পেন্সিলের লেখায় ঐ দুটি পদের বাংলা অনুবাদ-সহ, পাওয়া যাইতেছে। ৬৬-সংখ্যক বিদ্যাপতি-পদের পুনরমুদ্রণে, গ্রীয়র্সনের শুদ্ধিপত্র-অনুযায়ী দ্বিতীয় চতুর্থ ও নবম ছত্রে পাঠভেদ ঘটিয়াছে এবং তৃতীয় ছত্রে আরেকটি সংশোধনও আছে। মূলপদের লিপ্যন্তরে যে রীতি অমুস্থত, বর্তমান গ্রন্থের ১৮৯ পৃষ্ঠায় বিবৃত হইয়াছে। RVIV