প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:রূপান্তর-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.djvu/৭০

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


উমার স্বহস্তে তুলা পল্লবে-জড়িত হিমসিক্ত ফুলগুলি অৰ্পি পদতলে সখীগণ মহাদেবে করিল প্রণাম ॥ ৬১ উমাও সে পদতলে হইলেন নত— চঞ্চল অলক হতে পড়িল খসিয়া নবকণিকার ফুল মহেশচরণে ॥ ৬২ [ অন্য ] নারী -অনুরক্ত নহে যেই জন [ হেন ] পতি লাভ করে আশীষিলা দেব [ ক ] থার কভু হয় না অন্যথা ॥ ৬৩ [ অ ] বসর প্রতীক্ষা করিয়া করি ॥ ৬৪ পদ্মবীজমালা লয়ে আরক্তিম করে মহেশের হস্তে উমা করিলা অর্পণ ॥ ৬৫ সম্মোহন পুষ্পধনু করিয়া যোজনা অমনি শিবের প্রতি হানিলা মদন ॥ ৬৬ অমনি হইলা হর ঈষৎ অধীর সবেমাত্র চন্দ্রোদয়ে অম্বুরাশি-সম, উমার মুখের পরে মহেশ তখন একেবারে ত্রিনয়ন করিলা নিবেশ ॥ ৬৭ অমনি উমার দেহ উঠিল শিহরি, সরমবিভ্রান্ত নেত্রে লাজনম্র মুখে পার্বতী মাটির পানে রহিলা চাহিয়া ॥ ৬৮ মুহূর্তে ইন্দ্রিয়ক্ষোভ করিয়া দমন বিকৃতির হেতু কোথা দেখিবার তরে দিশে দিশে করিলেন ত্রিনয়নপাত ॥ ৬১ ●创