পাতা:লক্ষণ সেন - দুর্গাদাস লাহিড়ী.pdf/১১৫

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


বীরসাজে। Y > > পুরস্কার প্রাপ্ত হইবে,—ঘোষণায় সেই কথা প্রচারিত হইল । যদি কেহ বীরসিংহকে জীবন্ত অবস্থায় মহারাজ লক্ষ্মণ-সেনের নিকট আনয়ন করিতে পারেন, তিনি যে পুরস্কার চাহিবেন, মহারাজ তাহাকে সেই পুরস্কারই প্রদান করিবেন বলিয়া অঙ্গীকার করিলেন । এক দিকে বীরসি হের জন্ঠ নবদ্বীপাধিপতির এইরূপ ব্যাকুলতা ; অন্যদিকে ঘটনা-চক্রের আবর্তনে পড়িয় নবদ্বীপধিপতির বিরুদ্ধে বীরসিংহের অস্ত্ৰধারণ! বিধির কি বিচিত্র বিধান! এক দিকে প্রতিজ্ঞা-রক্ষার জন্য বীরসিংহ আপন অন্নদাতা প্রভূর বিরুদ্ধে অস্ত্ৰধারণ করিতে অগ্রসর হইতেছেন ; অন্য দিকে তাহার প্রভু তাহার জীবন-রক্ষার জন্য সৰ্ব্বস্ব পণ করিয়া ঘোষণ-বাণী প্রচার করিতেছেন! বীরসিংহ লৌহ-বৰ্ম্ম পরিধান করিতেছেন ; লৌহ-বৰ্ম্মের বঞ্চনীয় তাহার কর্ণকুহরে যেন মহারাজ লক্ষ্মণ-সেনের ঘোষণাবাণী ধ্বনিত হইতেছে। বীরসিংহের মস্তকে শেতা শিরস্ত্রাণ পরাইয়া দিতেছে ; সঙ্গে সঙ্গে মস্তিষ্কের ভিতর রাজচক্রবর্তী লক্ষ্মণ-সেনের করুণার স্মৃতি জাগিয়া উঠিতেছে! কটিদেশে কটবন্ধে শাণিত খড়গ দোদুল্যমান হইতেছে ; বীরসিংহ মনে মনে কহিতেছেন,—“রে অসি ! এখনও আমার মস্তকচ্ছেদ করিতে পরিলি না!" যতই অঙ্গে অঙ্গে যোদ্ধৃবেশ বিন্যস্ত হইতেছে, ততই দারুণ আত্ম-গ্লানি-বিষে দেহ জৰ্জ্জরিত হইয়া আসিতেছে। তাহার একবার মনে হইতেছে,—"আমি কি নরাধম! আমি আমার পিতার বিরুদ্ধে—আমি আমার অন্নদাতা প্রভুর বিরুদ্ধে— অস্ত্ৰধারণ করিতে চলিয়াছি । ধিক- ধিক—শত ধিক আমাকে !” حابہx’ یے؟-جمے "یہ" ب&حمہ s بر.x ..-x .* سری ۰