পাতা:লক্ষণ সেন - দুর্গাদাস লাহিড়ী.pdf/১৩২

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


>९br লক্ষণ-সেন জয়দেব ও পদ্মাবতীর শুত পরিণয়ের পর তাহারা গৃহী হইলেন। গৃহী হইয়া, গৃহীর কৰ্ম্ম-দেবসেবা, অতিথি-সৎকার দয়াধৰ্ম্মানুষ্ঠান, ভগবদ গুণানুকীৰ্ত্তন প্রভৃতি কাৰ্য্যে তাহদের জীবন অতিবাহিত হইতে লাগিল । পিতামাতার সেবার জন্য জয়দেব এথম ব্যাকুল হইয়। পড়িলেও,সে শুভ-মিলনে কিন্তু আরও কিছুকাল অন্তরায় ঘটিল। ,রাজা বানন্দদেবের সাধ ছিল, জয়দেবের পিতামাতার সন্ধান লইয়া সস্ত্রীক জয়দেবকে তঁহাদের নিকট পঠাইয়া দেন । কিন্তু ঘটনা-চক্রে তখন তাহার সে উদেশু সিদ্ধ হইল না । মিথিলার সহিত নবদ্বীপাধিপতির যুদ্ধের জন্ত নবদ্বীপের পথে জন-সাধারণের গতিবিধি প্রায়ই তখন বন্ধ হইয়াছিল। বিশেষতঃ কতকগুলি যাত্রী নবদ্বীপে গিয়া নজরবন্দী হইয়? আছে—জানিতে পারিয়াও, তিনি জয়দেবকে ও পদ্মাবতীকে সে সময় পাঠাইতে সাহস করিলেন না । জয়দেবকে দেশে পাঠাইতে বিলম্ব করায়-আরও একটু নিগৃঢ় কারণ ছিল। রাজ আনন্দ বি, জয়দেবের মধুর কণ্ঠে হরিগুণগান শুনিয়া বিভোর হইয়াছিলেন। তাই তিনি প্রায়ই বলিতেন,—“জয়দেব চলিয়া গেলে, আমার এ বিভোরত ভাঙ্গিয়া যাইবে। এ বিভোরত ভাঙ্গিলে, আমি আর কয় দিন বাচিব ?” - জয়দেব সুকণ্ঠ সুগায়ক ছিলেন। র্তাহার নিত্যকৰ্ম্ম হইল— প্রতিদিন সঙ্গীত রচনা করিয়া জগন্নাথকে গুনাইয়া আসা। পদ্মাবতী পতি ভিন্ন অন্য কিছুই জানিতেন না ; পতিসেবাই র্তাহার একমাত্র কৰ্ম্মের মধ্যে গণ্য হইল । গৃহী হইয়। পুরুষোত্তমে বাস করিবার সময় জীঐগীতগোবিন্দ