পাতা:লক্ষণ সেন - দুর্গাদাস লাহিড়ী.pdf/১৬৪

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


\a লক্ষণ-সেন । আগন্তুক অনেকক্ষণ পৰ্য্যন্ত বীরসিংহের মুখের পানে চাহিয় রহিলেন। র্তাহার নিশ্বাস-প্রশ্বাস পরীক্ষা করিলেন। পরিশে: আপন হস্তস্থিত কমণ্ডলু হইতে জল লইয়া তাহার মুখে-চপে প্রক্ষেপ দিলেন । কয়েক বার জলসেচনের পর বীরসিংহ এক ব: চক্ষু চাহিলেন । আগন্তুক কহিলেন,—“মা ! হতাশ হইবার কারণ নাই ।” শোভা উল্লাসে উৎফুল্প হইলেন ; কহিলেন,-"দেব ! আপনাদের দয়ায় অসম্ভব সম্ভব হইতে পারে।” আগন্তুক উত্তর দিলেন,—“না মা ! অসম্ভব কখনও সস্তুর হইতে পারে না। তবে আমি যতটুকু বুঝিতেছি, শুশ্রম করিলে, ইহার প্রাণলাভ অসম্ভব বলিয়া মনে হয় ন৷ ” শোভা অধিকতর ব্যগ্রস্তাব প্রকাশ করিয়া কহিলেন,~~ “যাহাই বলুন, আপনার শরণাপন্ন হইয়াছি। যাহাতে বীর সিংহের প্রাণরক্ষ হয়, আপনাকে তাহা করিতেই হইবে।” আগন্তুক উত্তর দিলেন,—“উহার ক্ষতস্থানে প্রলেপ দিবার জন্য শীঘ্রই একটা ঔষধ আনিয়া দিতেছি । আপনি ততক্ষণ আমার এই ক্ষুদ্র কমণ্ডলু হইতে জল লইয়া মধ্যে মধ্যে উইং মুখে চ'খে এবং ক্ষতস্থানে প্রক্ষেপ করিতে থাকুন।” এই বলিয়া, শোভার নিকট আপন কমণ্ডলু রাখিয়া, আগন্তুক ঔষধ আনিবার জন্য প্রস্থান করিলেন । শোভা অনেকক্ষণ সেইভাবে সেই প্রান্তরে বসিয়া রহিলেন। এক একবার কমণ্ডলু হইতে জল লইয়। মুখে চ'থে ও ক্ষতস্থানে প্রক্ষেপ করেন ; এক একবার বীরসিংহের চক্ষু উল্মীলিত হয় ; এক একবার শোভার হৃদয় আশার লহরে নাচিয় উঠে।