পাতা:লক্ষণ সেন - দুর্গাদাস লাহিড়ী.pdf/২০৫

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


চতুশ্চত্ত্বারিংশ পরিচ্ছেদ । همه سحابه محماسه 0 ==== سحابسته কমলমণি । ত্ৰিলোচন বস্তুর যুক্তির সংবাদ প্রচারিত হইল । কিন্তু হার আত্মীয়-স্বজন কেহই আর র্তাহার কোনও সন্ধান পাইলেন না। ত্রিলোচন নিজে তে কাহারও কোনও সন্ধান রইলেনই না ; তাহার সন্ধান লইবারও অবসর কেহ পাইল ন -এমনই চকিতের ন্যায় তাহার অন্তৰ্দ্ধান ঘটিল। ত্ৰিলোচনের সহধৰ্ম্মিণী কমলমণি পতির মুক্তির জন্য যথাসামর্থ্য চেষ্টা করিয়াছিলেন। কিন্তু কোনই ফল হয় নাই। মূতন গ্রামের বাস উচ্ছেদ হইলে তিনি পিত্রালয়ে গমন করেন। কিন্তু অদৃষ্ট সঙ্গে সঙ্গে যায় । কমলমণির পিত্রালয়ে উপস্থিত হইবার অল্পদিন মধ্যেই তাহার পিতা ইহলোক পরিত্যাগ করেন ; জননী পতিসহ সহমৃতা হন। সংসারে অপথও কনিষ্ঠ মাত্র বিদ্যমান ছিল। উহাকেই উপলক্ষ করিয়া কমলমণি নবদ্বীপে আগমন করেন। সেখানে গঙ্গাতীরে এক গৃহস্থের কুটিয়ে আশ্রয় লন। গৃহস্থ—দূর-সম্পর্কে তাহার মাতুল হইতেন। কমলমণির সেই দূর-সম্পর্কিত মাতুলের নাম—হলধর রায়। রায় মহাশয় বৃদ্ধ হইয়াছিলেন। চক্ষে ভাল দেখিতে পাইতেন না। সংসারে একমাত্র পত্নী ভিন্ন তাহার আর অপর কোনও বন্ধন ছিল না! পূৰ্ব্বে রাজসরকারে তিনি সামান্ত বেতনে চাকরী করিতেন। দৃষ্টিশক্তিহীন হওয়ায় চাকরীতে জৰাৰ ঠইয়াছে। কিন্তু রাজসরকার হইতে র্তাহার ও তাহার গীর