পাতা:লক্ষণ সেন - দুর্গাদাস লাহিড়ী.pdf/২৩০

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


२२७ ।। লক্ষণ-সেন । সকল অবস্থায়ই প্রতিষ্ঠা-লতি করিয়াছি। শেষ অবস্থার শেষ । কার্য্যে আমাকে কি তোমরা বিমুখ করিতে চাও?’ সংগ্রাম-সিংহ |—“সে কথা আমরা কদাচ বলি না। কিন্তু—" বাধা দিয়া মহারাজ লক্ষ্মণ-সেন কহিলেন,--“মনে কর, আমি আর ইহ-সংসারে নাই। মনে কর, কুমার লক্ষ্মণেয় এক্ষণে রাজ্যভার প্রাপ্ত হইয়াছে ;– আর তোমরা তাহার দক্ষিণ-বাহরূপে বিদ্যমাম আছ । সে অবস্থায় যাহ। করা কর্তব্য, তাহারই ব্যবস্থা করিতে পার।’ সংগ্রাম-সিংহ ।–“ষদি তাহাই কৰ্ত্তব্য স্থির করিয়া থাকেম, সে উপদেশও তো আমাদের পাওয়া প্রয়োজম । আপনি উপস্থিত থাকিয়া কুমারের সম্বন্ধে সুব্যবস্থা করিলেই ভাল হয় না কি !” লক্ষ্মণ-সেন।–“আমি মনে করিয়াছি, আগামী সারস্বত উৎসবের সময় কুমারের রাজ্যভিষেক-ক্রিয়া সম্পন্ন করিব। কুমারকে সিংহাসনে বসাইয়া, সরস্বত উৎসব সমাপনান্তে, আমি পুরুষোত্তমে গমন করিয়া, জগবন্ধুর সেবায়ু জীবনাতিপাত করিব।” সংগ্রাম-সিংহ।–“আরও কিছুকাল অপেক্ষা করিলেই ভাল হইত। কুমার রাজকাৰ্য্যে একটু পরিপক্ক হইলে আপনার পুরুষোত্তম-গমন শ্ৰেয়ঃ ছিল। আপনার পুরুষোত্তম-যাত্রার সঙ্কল্পের বিষয় অবগত হইয়া আপনাকে প্রতিনিবৃত্ত করিবার জন্যই আমি আপনার সহিত সাক্ষাৎ করিতে আসিয়াছি । কয়েকট প্রয়োজনীয় বিষয়ের পরামর্শ করিতে আসিয়াছি যে বলিয়াছি, এ প্রসঙ্গও তাহার অন্যতম।”