পাতা:লক্ষণ সেন - দুর্গাদাস লাহিড়ী.pdf/২৩৮

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


২৩8 লক্ষণ-সেন । কিন্তু বীরসিংহের কোনই উত্তর পাইলেন না । শোভাকে সম্বোধন করিয়া কহিলেন,—“মা ! বীরসিংহ কি তবে কুটিরে নাই ! বীরসিংহ কোথায় গেলেন ?” বাপাবরুদ্ধ-কণ্ঠে শোভা কহিলেন,—“বাবা! আমি কিছুই জানি না—কিছুই বলিতে পারিতেছি না। কয় দিন হইতে তিনি বড়ই উন্মন ছিলেন। আপনি যখন র্তাহাকে নবদ্বীপে লইয়া যাওয়ার কথা কহিতেন, তিনি আপত্তি করিতে পারিতেন না বটে ; কিন্তু র্তাহার অস্তরে সৰ্ব্বদাই যেন অনিচ্ছার তরঙ্গ উথিত হইত। আমি যখনই কোনও কথা জিজ্ঞাসা করিয়াছি, দেখিয়াছি—তিনি অন্যমনস্ক । নবদ্বীপ-যাত্রার ব্যবস্থা হইয়াছে শুনিয়া আজ র্তাহার চাঞ্চল্য বড়ই বৃদ্ধি পাইয়াছিল । তিনি নদীর দিকে মুখ ফিরাইয়া বসিয়া ছিলেন । আমরা আহারাদির উদ্যোগ করিতেছিলাম। পাত পাতিয়াছি, অন্ন-ব্যঞ্জনাদি সাজাইয়া দিয়াছি। বৃন্দ। তাহাকে ডাকিতে গিয়া আর খুজিয়া পাইল না! বৃন্দার চীৎকারে আমি বাহিরে আসিলাম । আর র্তাহাকে দেখিতে পাইলাম না।’ দয়ানন্দ ---"কৈ,—বৃন্দাই বা কৈ ? বৃন্দাই বা কোথায় গেল ?” > . “বৃন্দা!—বৃন্দা !" বলিয়। দয়ানন্দ চীৎকার করিয়া ডাকিলেন। বৃন্দারও আর কোনও সাড়াশব্দ পাওয়া গেল না । শোভা কহিলেন,—“বৃন্দ। এই পথে তাহার অনুসন্থনে গিয়াছে ” দয়ানন্দ –“মা! তুই তবে নদীর তীরে দাড়াইয়া দাড়াইয়া কি দেখিতেছিলি ?” শোভা।–“আমি দেখিতেছিলাম — ঐ তরঙ্গ ! আমার