পাতা:লক্ষণ সেন - দুর্গাদাস লাহিড়ী.pdf/২৬২

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


२८r লক্ষণ-সেন । বfক্তরারের কুবেরের তাণ্ডার । এই সুবর্ণ-মুদ্র। পাইলে আমার জfর কিসের অভাব |" বিশ্বেশ্বর কহিলেন,--“দেখিলেন-যাহ বলিয়াছিলাম, সতা কি না ! সাহানসাহ বাদসাহের মেজাজ দেখুন! রাজ। লক্ষ্মণসেনের দান-মাহাষ্ম্যের কথা চারিদিকে বিঘোষিত । কিন্তু এমন দান কখনও দেখিয়াছেন কি ? এখানে উপস্থিত হওয়া মাত্রই যখন এই বিপুল অর্থের অধিকারী হইলেন, তখন মনে করুন দেখি—কোনও উপকার করিলে কি পুরস্কার পাইতে পারেন । উপকারই বা এমন কি বিশেষ উপকার! যুদ্ধ করিতে হইবে না, অস্ত্ৰধারণ করিতে হইবে না ; কেবলমাত্র কয়েকট পরামর্শ " । বক্তিয়ার কহিলেন,—“আপনাকে মিত্রভাবে গ্রহণ করিয়াছি । আপনার উপর কোনও জোর-জবরদস্তি নাই । আপনার বিবেচনায় যাহা ভাল হয়, তাহাই পরামর্শ দিবেন।” ত্ৰিলোচন বিষম সমস্যায় পড়িলেন। কিসের পরামর্শ দিবেন। কি পরামর্শ দিবেন,—ভাবিয়া স্থির করিতে পরিলেম না । বলবস্তুসিংহ কহিলেন,—“আপনার নিকট বাদসহ অধিক কিছু আকাক্ষ করেন না। আপনি নবদ্বীপ-রাজ্যের পথ-ঘাট সকলই অবগত আছেন। সেই সকল বিষয় আমাদিগকে জানাইলেই পরম উপকৃত মনে করিব।” ত্ৰিলোচন —“আপনারা তে সকলই দেখিয়া-শুনিয়া আসিয়াছেন! তাহার তাধিক আমি আর কি বলিব ?” বক্তিয়ার ঈষৎ হাসিয়া, আত্মভাব গোপন করিয়া, কহিলেন, --"সে কথা ঠিকই বলিয়াছেন! তবে সময়ে সময়ে উদ্বারা যদি