পাতা:লক্ষণ সেন - দুর্গাদাস লাহিড়ী.pdf/৩০৪

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


9) o o লক্ষণ-সেন । মাত্রেই নমস্ত । আমরা কাহার কথায় অবহেলা করিব, আর কাহার আদেশই বা প্রতিপালন করিব ?” সাধুপুরুষ —“সকলেই মোহে আচ্ছন্ন ; সকলেই ভুল বুঝাইতেছে। সাধারণ বুদ্ধিতে সামান্য একটু বিবেচনা করিয়া দেখিলে যে তত্ত্ব উপলব্ধ হয়, তাহার জন্য এত বিতর্ক-বিতণ্ডার কি প্রয়োজন ? আপনার আর অণুমাত্র কালক্ষয় করিবেন না ! যদি এ রাজ্যের মঙ্গলাকাজ করেন, এখনই সত্যতত্ত্ব প্রচারে ব্ৰতী হউন । সকলকে বুঝাইয়া দেন,—হিন্দুও যা, মুসলমানও তা। হিন্দুর রাজ্যে মুসলমানের আগমনে কোনই দোষ নাই ।” সাধুপুরুষ যতক্ষণ বুঝাইতেছিলেন, রঘুদেব ততক্ষণ সন্ন্যাসীর উক্তির উপযোগিতার বিষয় চিন্তা করিতেছিলেন। মনে মনে কহিতেছিলেন,—“উত্তেজিত অশাস্ত জনসাধারণের মধ্যে এই বাণী ঘোষণা করিতে হইবে । এ ভিন্ন আর উপায় দেখি না ।" সাধুপুরুষ চলিয়া গেলেন। তিনি যাহা সত্য বলিয়া বুঝিয়াছিলেন, সেই মত প্রচার করিতে প্রবৃত্ত হইলেন। সন্ন্যাসী প্রস্থান করিলে অনেকক্ষণ বিচার-বিতর্ক চলিল। এবম্বিধ মতের প্রচারে কিরূপ অনিষ্টের সস্তাবনা আছে, তাহাও প্তাহারা আলোচনা করিলেন। আবার ঐ মতের প্রচারে কি ইষ্টসাধন সম্ভাবনা, তদ্বিষয়ও আলোচিত হইল। কিন্তু কোনও মীমাংসা হইল না। ঘটনাস্ত্রেীত যে পথে প্রবাহিত হয়, তাহারা সেই পথেই পরিচালিত হইলেন। 臺 邀