পাতা:লক্ষণ সেন - দুর্গাদাস লাহিড়ী.pdf/৩৫

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


. বিষম সংবাদ । ○ >

  • v *** *

হইবার সুবিধু হইয়াছিল। সকলে সকল কথা নিঃসঙ্কোচে বলিতে পরিবেন,অপিচ সকলের সন্তেষ-বিধানে যথাসাধ্য সমর্থ হইবেন,—এই উদ্বেপ্তেই এইভাবে মহারার প্রত্যেকের তত্ত্ব লইবার ব্যবস্থা করিয়াছিলেন। .... একে একে সকল দেশের সকল সাহিত্যিকের সম্বন্ধন করিয়া, মহারাজ লক্ষ্মণ-সেন মৈথিল-পণ্ডিতগণের জন্য নির্দিষ্ট আবাস-ভবন অভিমুখে অগ্রসর হইলেন। তখন তাহার মন নানা চিন্তা-তরঙ্গে আন্দোলিত হইতে লাগিল। সভারম্ভের পূৰ্ব্বে iাভাসে তিনি যে কথা শুনিয়াছিলেন, এখন সেই কথা মনেমধ্যে বিশেষ-ভাবে জাগিয়া উঠিল । এক শ্ৰীধর মিশ্র ভিন্ন মৈথিল পণ্ডিতগণের অপর কেহই নবদ্বীপধিপতির নিমন্ত্রণে আগমন করেন নাই। সকলেই নিমন্ত্রণ গ্রহণ করিয়াছিলেন ; কিন্তু আদিলেন না কেন ? শ্ৰীধর মিশ্রের নিকট ভাল করিয়া সে কথা তাহার শুনা হয় নাই। এখন সে কথা শুনিবার জন্ত চিত্ত বড়ই আগ্রহাম্বি ত হইয়া উঠিল । সেই বাগ্রতার মধ্যে মহারাজ লক্ষ্মণ-সেন মৈথিল পণ্ডিতগণের জন্য নির্দিষ্ট আবাসভবনে, শ্ৰীধর মিশ্রের সন্নিধানে, উপনীত হইলেন । শ্ৰীধর মিশ্রকে বিশেষ কিছু জিজ্ঞাসা করিতে হইল না। মহারাজকে সম্মুখে উপস্থিত দেখিয়া, শ্ৰীধর মিশ্র বালকের ন্যায় কাদিয়া ফেলিলেন । শ্রীধর মিশ্রের ক্ৰন্দনের কোনও কারণ বুঝিতে না পারিয়া, বুঝি বা তাহার প্রতি রাজকৰ্ম্মচারিগণের কেহ কোনরূপ ব্যবহার করিয়াছে অনুমান করিয়া, মহারাজ সাম্বন-বাক্যে কহিলেন—“আপনার প্রতি কে কি ব্যবহার করিল ? অপনি নিৰ্ভয়ে সকল কথা প্রকাশ করুন ; আমি