পাতা:লক্ষণ সেন - দুর্গাদাস লাহিড়ী.pdf/৬৯

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


উদ্বেগে। ৬৫ AA AMAJAMAMMMSJSJMMMMMMAMAAMMAMAMAA AAJJSAAA AMA AMMMMAAMSMAMMSMMAAA AAAA AAAA S AAA S AAAAS তোমার চরণে সমৰ্পণ করিতে পারিয়াছি, ইহাই আমাদের পরম সৌভাগ্য।” সন্ন্যাসী আবার কহিলেন,—“তোর উতল হসনে । যা— তোরা দেশে ফিরে যা । এখনও জীবনের অনেক কাৰ্য্য অবশিষ্ট আছে। কন্যার জন্য ভাবিস না। র্যাহার সামগ্ৰী, তিনিই রক্ষা করিবেন।" হৃষীকেশ —“আশ্রয় কোথায় ? যাব কোথা !” সন্ন্যাসী আবার হা হা করিয়া হাসিলেন । হাসিতে হাসিতে কহিলেন,—“আশ্রয় কোথায়? এই অনন্ত ব্ৰহ্মাণ্ডে অনন্ত কোটী জীবের আশ্রয় আছে, আর তোদের আশ্রয় নাই!” হৃষীকেশ কাত্তর-কণ্ঠে উত্তর দিলেন,—“ঠাকুর । সকলই জানিতেছেন ;–সকলই বুঝিতেছেন । তবে আর কেন বৃথ। প্রবোধ দেন ?” সন্ন্যাসী।–“বৃথা প্রবোধ নয়। তোদের প্রাণাধিক। কন্যাকে—সেই সংসারজ্ঞানানভিজ্ঞ বালিকাকে কোন আশ্রয়ে আশ্রয় দিয়া আসিয়াছিস্ ! সেই নিঃসহায়া বালিকা যদি আশ্রয় পায়, তোরা এমন কৰ্ম্মক্ষম দুই জন আশ্রয় খুজিয়া পাইবি না ! তাকে যিনি আশ্রয় দিয়াছেন, তোদের আশ্রয়-স্থান তিনিই নির্দেশ করিয়া রাখিয়াছেন।” হৃষীকেশ অশ্রুপূর্ণলোচনে উত্তর দিলেন,-“সেইজন্যই সাগরে ঝ"াপ দিতে আসিয়াছি।” সন্ন্যাসী কুপিত স্বরে কহিলেন,—“অবিশ্বাসি ! সে বিশ্বাস তোদের আছে কি ? সে বিশ্বাস যদি থাকিত, তাহার চরণে যদি আত্ম-সমৰ্পণ করতে পার্তিস, তবে কি ভাবনা ছিল ?”