পাতা:লক্ষণ সেন - দুর্গাদাস লাহিড়ী.pdf/৭০

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


V,V) লক্ষণ-সেন । হৃষীকেশের যেন চৈতন্তোদয় হইল। হৃষীকেশ কহিলেন,— “ঠাকুর! তবে কি আদেশ করেন, বলুন।” সন্ন্যাসী।–“ভগবানে বিশ্বাসবান হও । যে বিশ্বাসে বিশ্বাসবান্ হইয়া পদ্মাবতীকে জগবন্ধুর চরণে সমর্পণ করিতে পারিয়াছিল, সেই বিশ্বাসে হৃদয়কে দৃঢ় করে। জগবন্ধু মঙ্গলময়। তাহার সকল কাৰ্য্যই মঙ্গলময়।" হৃষীকেশ।–“ঠাকুর! অনেক সময় সে মঙ্গল যে প্রত্যক্ষীভূত হয় না।” সন্ন্যাসী।–“দর্শন-শক্তি অসম্পূর্ণ; তাই দেখিতে পাও না। নির্ভরতা সংশয়-মেঘাচ্ছন্ন; তাই সাফল্য-জ্যোতিষ্ক অন্তরালভূত।" হৃষীকেশ অন্ধকার-পথে যেন আলোক-বৰ্ত্তিক দেখিতে পাইলেন। তিনি আবেগভরে কহিলেন,—“দেবতা ! সময় সময় প্রান্তি আসে। তাই পথ খুজিয়া পাই না।” সন্ন্যাসী।–“পথ সরল। পথ স্বপ্রশস্ত। একটু স্থির-লক্ষ্য হইলে, অগ্রসর হইবার পক্ষে কোনই বিঘ্ন ঘটে না। তখন ভ্রান্তি আপনিই দূরীভূত হয়।” এই বলিয়া সন্ন্যাসী উঠিয় দাড়াইলেন। তিনি উঠিয়া দাড়াইতেই হৃষীকেশের মনে হইল—ঠাকুর যেন অন্তরালে মাইবার চেষ্টা পাইতেছেন। হৃষীকেশ অমনি চরণ ধারণ করিতে গেলেন ; কহিলেন,—“ঠাকুর । যখন দেখা দিয়াছেন, তখন সঙ্গে লউন।" সন্ন্যাসী আবার হা—হা করিয়া হাসিয়া উঠিলেন। হাসিতে হাসিতে কহিলেন,--“হা-হা—হা! সবই মাটি ! সবই जद३ भांछि !"