পাতা:লক্ষণ সেন - দুর্গাদাস লাহিড়ী.pdf/৮৬

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


b~२ লক্ষণ-সেন । SAAAAAA SAJ AAAA AAAA AAAASAA AAAS AAAAA AAAA AA AA ASASASA AAA AAASA SAAAAA S ** ہم » г. rх - - রাজ্য দুই-ই যদি আমরা সমর্পণ করি, বিবাদ এখনই তো মিটিয়া যায় !" জয়সিংহ —“রাণি! সব বুঝি—সব করিতে পারি। কিন্তু মান-সন্ত্রম আগে, কি প্রাণ আগে ? মান-সন্ত্রমের তুলনায় সকলই তুচ্ছ নহে কি ? রাজা লক্ষ্মণ-সেন ভ্ৰকুট-ভঙ্গি করিবে ;–অধীন রাজা বলিয়া নিয়ত পদদলিত করিবার চেষ্টা পাইবে ;–ক্ষত্রিয়সন্তান হইয়া কোন প্রাণে তাহ সহ করিতে পারি? প্রাণ যাক, রাজ্য যকৃ, সব যাক্ ; কিন্তু মানসন্ত্রমে জলাঞ্জলি দিতে পারিব না ! তুমিই কি আমায়ু সেই উপদেশ দেও ?” রাণী।–“ক্ষত্রিয়-রমণী কখনও সে উপদেশ দেয় না । মানসন্ত্রম-রক্ষার জন্য শোভাকে যদি স্বহস্তে বলি দিতে হয়, আমিই কি তাহাতে পরায়ুখ ?" জয়সিংহ। —“তই জানি বলিয়াই তো প্রাণ আজ ব্যাকুল হইয় পড়িয়াছে! রাণি! জানি না-শোভার অদৃষ্টে কি আছে! হয় তো চামুণ্ডার মন্দিরে শোভাকেই বলি দিতে হবে!” রাণী।–“আচ্ছা—বীরসিংহকে হাত করা যায় না ?” জয়সিংহ —"প্রথমে আমার মনে কতকটা সে চিন্তার উদয় হয়েছিল বটে ; বীরসিংহকে বন্দী করলাম ব'লে লক্ষ্মণ-সেনকে যখন পত্র লিখি, তখন মনে মনে আমার এই সঙ্কল্পই ছিল বটে ! আমি মনে করেছিলাম, বীরসিংহকেও ক্রমশঃ বশীভূত করব ; আর লক্ষ্মণ-সেনকেও প্রকারান্তরে আমার প্রস্তাব শুনাইব । তাহারা তাহাতে সন্মত হ’তেও পারতেন । কিন্তু—” রাণী।–“এখন কি আর উপায় নাই ?” জয়সিংহ —“আর উপায় নাই। আমি বীরসিংহের প্রাণ