পাতা:লক্ষণ সেন - দুর্গাদাস লাহিড়ী.pdf/৯৮

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


Ꮬ8 লক্ষণ-সেন । বীরের ন্যায় মরিতে পরিলেন না । সিংহ পিঞ্জরাবদ্ধ হইয়। আততায়ীর অস্ত্র ঘাতে প্রাণ বিসর্জন করিতে প্রস্তুত হইল । বীরসিংহ যখন মৃত্যুকে এইরূপ-ভাবে আলিঙ্গন করিবার জন্ত প্রস্তুত ; গভীর নিশীথে হস্তপদাবদ্ধাবস্থায় অন্ধকার কারাগৃহে বসিয়া তিনি যখন মৃত্যুর জন্য প্রতীক্ষা করিতেছেন, সহসা কারাগারের দ্বার উন্মুক্ত হইল। অন্ধকার কারাগৃহে বসিয়া, বীরসিংহ চক্ষু মুদিয়া আপনার দূরদৃষ্টের কথা ভাবিতেছিলেন । কারাগারের দ্বারোন্মোচন হওয়ায় সেই শব্দে তাহার চিন্তাস্রোত প্রতিহত হইল। তিনি চক্ষুরুন্মীলন করিয়া দেখিলেন,—কারাগুহ যেন কি এক দিব্য আলোকে উদ্ভাসিত। বীরসিংহের মনে হইল,—তিনি বুঝি স্বপ্ন দেখিতেছেন । কারাগুহের দ্বার উন্মুক্ত করিয়া এক অনিন্দ্যমুন্দরী যুবতী বীরসিংহের নিকট উপস্থিত হইলেন । আপনার কোমল করম্পর্শে বীরসিংহের হস্তপদের বন্ধন উন্মুক্ত করিয়া দিলেন। পরিশেষে সুন্দরী কহিলেন,—“বীরসিংহ! যদি বাচিতে ইচ্ছা কর, আমার সঙ্গে আইস।” এ কি স্বপ্ন ! - একি প্রহেলিকা ! বীরসিংহ কিছুষ্ট স্থির করিতে পারিলেন না। অৰ্দ্ধত্রস্ত অৰ্দ্ধবিজড়িত কণ্ঠে বীরসিংহ উত্তর দিলেন --“দেবী ! আপনি কে ? আমার প্রতি আপনার এ করুণা কেন ?” সুন্দরী বীণাfবনিন্দী কণ্ঠে কহিলেন,—“সে পরিচয়ের সময় এখন নহে। আর বিলম্ব করিবেন না শীঘ্র আমার অনুগামী হউন।” বন্দী বিহালের ন্যায় উত্তর দিল,—“কোথায় যাইব ?” .۔ .۔ م.م.