প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:শরৎ সাহিত্য সংগ্রহ (অষ্টম সম্ভার).djvu/১৬৫

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


পণ্ডিত মশাই হইয়া উঠিয়াছিল। আবার সবচেয়ে বিপদ হইয়াছিল, যে সিন্মুকটির ভিতরে তাছাজেন্ম সঞ্চিত গুটি-কয়েক টাকা ছিল, তাহার চাবিটাও কাছে নাই ; অথচ হাতেও একটি পয়সা নাই । এমন নিরুপায়ভাবে মিনিট-পাচেক দাড়াইয়া থাকিয়, হঠাৎ তাহার সমস্ত রাগটা গিয়া পড়িল বৃন্দাবনের উপরে ; বাস্তবিক, সমস্ত দোষ ত তাহারই । কেন সে তাহার নিৰ্ব্বোধ নিরীহ ভাইটিকে পথ হইতে ধরিয়া লইয়া গেল, কেনই বা এইসব পরিহাস করিল !—উনি কে ষে, দাদা ওকে ঘরে ডাকিয় আনিয়া খাওয়াইবে ? এই তিন বংসর কত ছলে, কত উপলক্ষে বৃন্দাবন এ-দিকে যাতায়াত করিয়াছে ; কত উপায়ে তাহাদের মন পাইবার চেষ্টা করিয়াছে ; কতদিন সকাল-সন্ধ্যায়, বিনা প্রয়োজনে বাটীর সম্মুখের পথ দিয়া হঁটিয়া গিয়াছে। তাহাদের দুঃস্থ অবস্থার কথা সে সমস্ত জানে —জানে বলিয়াই, তাহাদিগকে অপদস্থ করিবার এই কৌশল স্বষ্টি कब्रिग्नां८छ् ! কুসুম কাঠের মূৰ্ত্তির মত সেইখানে দাড়াইয়া চোখ মুছিতে লাগিল । সে বড় অভিমানিনী ; এখন সে কি উপায় করিবে ? .* বৃন্দাবনের মা ঘরের ভিতরে উঠিয়া গিয়া, ছেলেদের সহিত কথাবার্তা বলিতেছিলেন ; কিন্তু তার ছেলের চোখ ঘরের বাহিরে ঘুরিয়া বেড়াইতেছিল। হঠাৎ সে দৃষ্টি রান্নাঘরের ভিতরে কুস্কমের উপর পড়িল—চোখাচোখি হইল, মনে হইল, সে সঙ্কেতে তাহাকে যেন আহবান করিল। পলকের এক অংশের জন্য তাহার সমস্ত হৃৎপিণ্ড উন্মত্তের মত লাফাইয়া উঠিয়াই স্থির হইল। সে বুঝিল, ইছা চোখের ভুল, इंश् श्रमखद ! দৈবাৎ কখন দেখা হইয়া গেলে যে মাহৰ মুখ ঢাকিয় দ্বতপদে প্রস্থান করিয়াছে, যাহার নিদারুণ বিতৃষ্ণার কথা সে অনেকবার কুঞ্জনাথের কাছে শুনিয়াছে, সে ৰাচিয়া তাহাকে আহবান করিবে- এ হইতেই পারে না । বৃন্দাবন অন্য দিকে চোখ ফিরাইয়া মাইল ; কিন্তু থাকিতেও পারিল না। যেখানে চোথাচোখি হইয়াছিল, আবার সেইখানেই চাহিল। ঠিক তাই ! কুষম তাহারই দিকে চাহিয়াছিল, হাত নাড়িয়া छांकिछ । ভ্ৰস্তপদে বৃন্দাবন উঠিয়া আসিয়া, রান্নাঘরের কপাটের কাছে দাড়াইয়া মৃদুম্বরে জিজ্ঞাসা করিল, ডাকছিলে আমাকে ? কুক্ষম তেমনি মৃদুকণ্ঠে বলিল, স্থা । বৃন্দাবন আরো একটু সরিয়া আসিয়া জিজ্ঞাসা করিল, কেন ? কুস্কম একমুহূর্ত মৌন থাকিয়, তারি চাপা গলায় বলিল, কচ্চি জিজ্ঞেস তোমাকে, DDDDD BB BBBBB DD DDS SDDD DD DDBDD B DDDD DDD DS 》●●