প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:শরৎ সাহিত্য সংগ্রহ (অষ্টম সম্ভার).djvu/২২২

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


শরৎ-সাহিত্য-সংগ্ৰহ পাওয়ার কাছে মেয়েমানুষের শক্ত কাজ কি দিদি । তাও যদি না পাই, তৰু ফিরে আগভূম না-তাড়িয়ে দিলেও না । গায়ে ত আর হাত দিতে পারতেন না, তবে ভয়ট কি ? বড় জোর বলতেন, ‘তুমি যাও ; মামি বলতুম, “তুমি যাও—জোর করে, থাকলে কি করতেন তিনি ? তাহার কথা শুনিয়া এত দুঃখেও কুরম হাসিয়া ফেলিল । ব্ৰজেশ্বরী কিন্তু এ হাদিতে যোগ দিল না—সে নিজের মনের কথাই বলিতেছিল, হাসাইবার জঙ্ক, সাত্বনা দিবার জন্ত বলে নাই । অধিকতর গভীর হইয়া কহিল, সত্যি বলচি ঠাকুরবি, কারো মান শুনো না -যাও র্তার কাছে। এমন বিপদের দিনে স্বামী-পুত্রকে এক ফেলে রেখো না । ব্ৰজেশ্বরীর এই আকস্মিক কণ্ঠস্বরের পরিবর্তনে কুহুম সব ভুলিয়া ধড়ফড় করিয়া উঠিয়া বসিয়া বলিল, বিপদের দিন কেন ? बtख**ौ राजिल, विश्रृं८मद्र किन यश् कि ? अयर्थ, खैब्रां छांज श्रांटझन, किड़ বাড়লে সেই যে ওপাউঠা গুরু হয়েছিল, তোমার দাদা এখনি বললেন, এখন নাকি ভয়ানক বেড়েছে-প্রত্যহ দশজন বারজন করে মারা পড়চে—ছি ছি, ওকি করপায়ে হাত দিয়ে না ঠাকুবুঝি। কুষম তাহার দুই পা চাপিয়া ধরিয়া কাদিয়া উঠিল—বোঁদি, আমার চরণকে তিনি দিতে এসেছিলেন, আমি নিইনি—আমি কিছু গুনিনি বৌদি– ব্ৰঞ্জেশ্বরী বাধা দিয়া বলিল, বেশ, এখন শুনলে ত এখন গিয়ে তাকে নাও গে । কি করে যাবো ? ব্ৰজেশ্বরী কি বলিতে যাইতেছিল, কিন্তু হঠাৎ পিছনে শব্দ শুনিয়া ঘাড় ফিরাইয়া দেখিল, দোর ঠেলিয়া চৌকাঠের ও-দিকে মা দাড়াইয়া আছেন। চোখাচোখি হইতেই তীব্র শ্লেষের সহিত বলিলেন, ঠাকুরকি-ঠাকরুণকে কি পরামর্শ দেওয়া হচ্চে শুনি ? ব্ৰজেশ্বরী স্বাভাবিক স্বরে কহিল, বেশ ত মা, ভেতরে এসো বলচি । তোমার কিন্তু কোন ভয়ের কারণ নেই মা, আপনার লোককে কেউ খারাপ মতলব দেয় না, আমিও দিচ্চিনে । মা বহুক্ষণ হইতেই অস্তরে পুড়িয়া মরিতেছিলেন, জলিয়া উঠিয়া বলিলেন, তার মানে আমি লোকজনকে কু-মতলব দিয়ে থাকি, না ? তখনি জানি, ও কালামুখী যখন ঘরে ঢুকেচে, তখন এ বাড়িও ছারখার করবে। সাধে কি কুঞ্জনাথ ওকে দুটি চক্ষে দেখতে পারে না, এই স্বভাব-রীতির গুণে । মেয়েও তেমনি শক্ত কি একটা জবাব দিতে যাইতেছিল, কিন্তু কুমের হাতের চিম্টি খাই থামিয়া বলিল, সেইজন্যেই কালামুখীকে বলছিলুম, বা শ্বশুরষর করগে বা, থাকিসনে এখানে । 畿》镜