প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:শরৎ সাহিত্য সংগ্রহ (একাদশ সম্ভার).djvu/২৩৩

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


එS দিন পাঁচ-ছয় পরে একদিন দুপুরবেলায় দিবাকর কিরণময়ীর ঘরে ঢুকিয় বিশেষ একটু আশ্চর্যা হইয়া দেখিল, সে অত্যন্থ নিবিষ্টচিলে মেঝেয় বসিয়া একখানা হাতের লেখা মূল সংস্কৃত রামায়ণ অধ্যয়ন করিতেছে । কিরণময়ী সাধারণ গৃহস্থ-ঘরের মেয়েদের চেয়ে যে বেশী লেখা-পড়া করিয়াছে এবং বাঙালা ইংরাজী দুই-ই একটু ভাঙ্গ করিয়া জানে, দিবাকর তাহা জানিত । কিন্তু তাই বলিয়া সে ভাল যে হাতের লেখা পুথি পড়িবার মত এতটা ভাল, এমন কথা দিবাকর স্বপ্নেও মনে করে নাই। চক্ষের পলক বিস্ময়ে শ্রদ্ধায় অবনত হইয়া সে সেইখানেই বসিয়া পড়িল । কিরণময়ী হাতের পাতাটা যথাস্থানে রাখিয় দিয়া মূখ তুলিয়া কহিল, হঠাৎ এমন অসময়ে যে ? দিবাকর একটু কুষ্ঠিত হইয়া বলিল, তুমি পড়ছিলে তা মনে করিনি বৌদি আমি বলি বুঝি— - ঘুমূচ্ছি। তাই নিরিবিলি ভেবে জাগাতে এসেচ ? দিবাকর লজ্জায় রক্তবর্ণ হুইয়া বলিল, যখন-তখন ওরকম ঠাট্টা করলে আমি বাড়ি ছেড়ে পালাব, তা বলে দিচ্চি বৌদি। কিরণময়ী হাসিয়া কহিল, পালাব বললেই কি পালানো যায় ঠাকুরপো ? গোলকধাঁধার পথ জানা চাই। আচ্ছ ব'সো ব'সো, রাগ করে উঠতে হবে না। আমি মনে করি ঠাকুরপো, দোর দিয়ে বসে বুঝি বিষের ছুরির পর খাড়া-টপাড়া একটা কিছু বড় জিনিস তৈরী করচ। তাই আমিও ডাকিনি। নইলে আমারই কি ত্বপুরবেলা রামায়ণ পড়া ভাল লাগে ? দিবাকর প্রশ্ন করিল, রামায়ণ তুমি বিশ্বাস কর ? কিরণময়ী কহিল, করি । দিবাকর অত্যন্ত বিস্ময়াপল্প হইয়া কহিল, কিন্তু অনেকেই করে না । বাস্তবিক, এর মধ্যে এত মিথ্যা এত অসম্ভব, এত প্রক্ষিপ্ত ব্যাপার আছে যে, সে কথা কোন মতেই অস্বীকার করা যায় না । কিরণময়ী একটু হাসিয়া পুথিটা হাত দিয়া ঠেলিয়া দিয়া বলিল, এই ত মূল গ্রন্থ, কই, প্রক্ষিপ্ত ব্যাপারগুলি বার করে দাও দেখি । क्विांकब्र चट्धष्ठिछ शहेब्रा बलिन, चाभि कि कtब्र बांद्र कब्रब ८र्शौग्नि, वांबि उ সংস্কৃত জানিনে । द देखें