প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:শরৎ সাহিত্য সংগ্রহ (একাদশ সম্ভার).djvu/২৪২

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


अनंब्र६-जांश्छिा-ज९७ॉइ. চেষ্টা করলেই হয় না। ঐ ছাদের কোণে বলে যদি তোমার মাথায় গাছ গজিয়েও ধায়, তবু তুমি কালিদাসের মত আর একটা ‘মেঘদূত’ লিখতে পারবে না। মেঘ দেখে তোমার ঝড়-জলের আশঙ্কাই হবে। সন্ধি লাগবার ভয়েই ব্যাকুল হয়ে উঠবে— বিরহীর দুঃখ ভাববার সময় পাবে না। হাজার চেষ্টা করলেও না। এই অক্ষমতা অস্থিমজ্জাগত—একে অতিক্রম করা যায় না। এই বলিয়া সে চুপ করিল। দিবাকরও জবাব দিল না। মাথা হেঁট করিয়া নিঃশব্দে বসিয়া রহিল। বহুক্ষণ পৰ্যন্ত আর কোন শস্ব রহিল না। নিবন্ধ ঘরের কোণ হইতে শুধু একটা জীর্ণ প্রাচীন ধূলি-মলিন ঘড়ির টিক টিক শব্দ আসিতে লাগিল। অনেকক্ষণ মৌন থাকিয়া কিরণময়ী হঠাৎ বড় মিঠা-গলায় কথা কহিল। বলিল, তোমাকে আরও দু-একটা কথা বলতে চাই । সেদিন তোমার বিষের ছুরি’ নিয়ে যাই কেন-ন বলে থাকি ঠাকুরপো, আমি এও দেখেছিলুম যে, তোমার মধ্যে একটা জিনিস আছে যা যথার্থ-ই প্রেমিক, যথার্থ-ই কবি । এই জিনিসটিকে যদি মেরে ফেলতে না চাও ত পরকে অপরাধী করার মুখ থেকে আপনাকে বঞ্চিত করতেই হবে । এ-কথা কোনদিন ভুলো না যে, কবি বিচারক নয়। নীতিশাস্ত্রের মতের সঙ্গে যদি তোমার মত বর্ণে বর্ণেনাও মেলে, তাতে লজ্জা পেয়ো না । আমি জানি, মানুষ পরের অক্ষমতা আর অপরাধ এক তুলাদণ্ডেই ওজন করে শাস্তি দেয়, কিন্তু তাদের বাটখাৱা ধার করে এনে তোমার কাজ চলবে না। তুমি বারংবার গোবিন্দ্রলালের উল্লেখ করেছিলে, সেই গোবিন্দ্রলাল ষে কত বড় শক্তির সম্মুখে পরাস্ত হয়ে সৰ্ব্বস্ব ত্যাগ করে গিয়েছিল, এ-সংসারে যারা নিছক ভাল-মন্দ বিচারের ভার নিয়েচে, এ প্রশ্ন তাদের নয়, এ প্রশ্ন তোমার। খুনের অপরাধে জজসাহেব যখন হতভাগ্যের প্রাণদও করেন, তখন তিনি বিচারক, কিন্তু অপরাধীর অস্তরের দুৰ্ব্বলতা অনুভব করে যখন তিনি ও লঘু করেন, তখন তিনি কবি । ঠাকুরপো, এমনি করেই সংসারের সামঞ্জস্ত রক্ষা হয়, এমনি করেই সংসায়ের ভুল, ভ্রাস্তি, অপরাধ দুৰ্ব্বিসহ হয়ে ওঠে না। কবি যে শুধু স্বাক্ট করে তা নয়, কবি স্বষ্টি ৱক্ষাও করে। যা স্বভাবতই স্বন্দর, তাকে যেমন আরও স্বন্দর করে প্রকাশ করা তার একটা কাজ, যা স্বন্দর নয়, তাকেও অম্বন্দরের হাত থেকে বাচিয়ে তোলা তারই আর একটা কাজ । দিবাকর একটুখানি ভাবিয়া কছিল, তা হলে কি অন্যায়কে প্রশ্রয় দেওয়া হবে না ? কিরণময়ী কহিল, ঠিক জানিনে হতেও পারে। শুনি মদের বিরুদ্ধে অত্যন্ত স্বণ জাগিয়ে দেওয়াও নাকি কবির কাজ । কিন্তু, ভালর উপর অত্যন্ত লোভ জাগিয়ে দেওয়া কি তার চেয়ে ঢের বেশি কাজ নয় ? তা ছাড়া পাপকে যতদিন না