প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:শরৎ সাহিত্য সংগ্রহ (একাদশ সম্ভার).djvu/২৫৩

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


চরিত্রহীন নিই, বলিয়া জোর করিয়া তাহাকে নিজের ঘরে টানিয়া আনিল, এবং প্রদীপ উজ্জল করিয়া দিয়া বাক্স খুলিয়া একজোড়া রূপার মোট মল ঝির হাতে দিয়া কহিল, তোর মেয়েকে পরতে দিলুম স্কি-না না, আমার মাথা খাস, তোকে নিতেই হবে,—আর কখনো যদি দেখা না হয় ; বলিতে বলিতেই সে ঝর ঝর করিয়া কাদিয়া ফেলিল । এ-সব কি কাণ্ড বোমা ! বলিয়া ঝি বিহ্বল-দৃষ্টিতে চাহিয়া রহিল। কিরণময়ী চোখ মুছিতে মুছিতে কহিল, তুই ছাড়া আমার আপনার কেউ নেই কি ! আমাকে বাচ। —আমাকে এখান থেকে পরিত্রাণ কর । এখানে থাকলে আমার বুক ফেটে যাবে! ঝি নিঃশব্দে কিরণময়ীর আপাদ-মস্তক বারংবার নিরীক্ষণ করিয়া বলিল, সমস্তই বুঝি বেীমা, আমিও ত মেয়েমানুষ। আমার মিনসে যেদিন পুকুরঘাটে কেঁদে বলেছিল, চললুম মুক্তো, আর হয়ত দেখা হবে না । তখন আমিও তার পায়ে পড়ে কেঁদে বলেছিলুম, ওগো, আমায় সঙ্গে নাও ! ফেলে রেখে গেলে আমার বুক ফেটে যাবে। তা কাল সকালেই বুঝি ছোটবাবু এখান থেকে চলে যাচ্ছে বোমা ? কিরণময়ী বলিল, ই । কিন্তু কলকাতায় আমাদের থাকা হবে না ঝি। কোথায় ঘাই বল দেখি ? : - ঝি লেশমাত্র চিন্তা না করিয়া কহিল, তবে আরাকানে যাও মা, মনের স্বখে থাকবে । আমার ছোটবোনও সেখানে—আমার নাম করলে তোমাদের সে মাথায় করে রাখবে। আজ ত মঙ্গলবার-কাল ভোরেই জাহাজ ছাড়বে। যাবে মা সেখানে ? কিরণময়ী ঝির হাত ধরিয়া বলিল, যাৰ । ঝি ভরসা দিয়া বলিল, তবে তোমরা ঠিক হয়ে থেকে, আমি ভোরবেলায় গাড়ি এনে তোমাদের নিয়ে যাব । কাক-পক্ষী জানতে পারবে না—তোমরা কোথায় গেলে । যাও মা, যাও, ছোটবাবুকে ছেড়ে তুমি বঁাচবে না, বলিয়া বি আঁচল তুলিয়া এবার নিজের চক্ষে দিল । ঠাকুরপো ? : রাত্রি বোধ করি তখন ভোর হইয়া গেছে, দিবাকর চমকিয়া উঠিয়া বলিল। ঠিক সম্মুখে কিরণময়ী দাড়াইয়া। - দিবাকর চমকিয়া কহিল, একি, বৌদি যে । - ই ঠাকুরপো, আমিই, বলিয়া কিরণময়ী বিহ্বল দিবাকরের বুকের উপর অবস্থাৎ উপুড় হইয়া পড়িল। কছিল, ঠাকুরপো, আষাৰে ছেড়ে নাকি ভূমি বাবে ? কৈ যাও দেখি । • * ૨૬૭