প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:শরৎ সাহিত্য সংগ্রহ (একাদশ সম্ভার).djvu/৪২৪

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


শরৎ-সাহিত্য-সংগ্ৰহ হয় পারিলাম না । কারণ advertise করা হইয়াছে আর ফিরান যায় না। আমার নিজের নামের জন্য আমি এতটুকুও মনে ভাবি না । লোকের যা ইচ্ছা আমার সম্বন্ধে মনে করুক, কিন্তু সে যখন বিশ্বাস করে, চরিত্রহীনের দ্বারাই তাহার কাগজের শ্ৰীবৃদ্ধি হইবে, এবং immoral হোক, moral হোক লোকে খুব আগ্রহের সহিত পাঠ করিবে— তখন সে যাহা ভাল বোঝে করুক...” ১. ৪, ১৯১৩ প্রমথনাথ ভট্টাচার্ধকে শরৎচন্দ্র লেখেন : • “:চরিত্রহীন তোমাকে পড়তে দিতে পারি কিন্তু মুদ্রিত করবার জন্য নয়। এটা চরিত্রহীনের লেখা চরিত্রহীন-তোমাদের স্বরুচির দলের মধ্যে গিয়ে বড়ই বিব্রত হয়ে পড়বে—তাছাড়া অত্যন্ত অশোভন দেখাবে। আমার সম্বন্ধে ( অবশু আমার recent লেখা প্রভৃতি আলোচনার পরে ) যদি ভাল opinion হয় এবং সে প্রায় কিছুই নয়। অ্যানালিসিস psychological-এই ইচ্ছা নিয়েই লিখি। সেটা পুড়ে যায় তার পরে দুটো মিলিয়ে একরকম করে লিখেছি।” ১৭. ৪, ১৯১৩ প্রমথনাথ ভট্টাচার্যকে শরৎচন্দ্র লেখেন : *...যাই হোক তোমাকে অন্ততঃ পড়িবার জন্যও চরিত্রহীনের যতটা লিখিয়াছিলাম-( আর অনেকদিন লিখি নাই ) পাঠাইব মনে করিয়াছি। আগামী মেলে অর্থাৎ এই সপ্তাহের মধ্যেই পাইবে । কিন্তু, আর কোনরূপ বলিতে পারিবে না। পড়িয়া ফিরাইয়া দিবে। তাহার প্রথম কারণ, এ লেখার ধরণ তোমাদের কিছুতেই ভাল লাগিবে না । Appreciate করিবে কি না সে বিষয়ে আমার গভীর সন্দেহ । তাই এটা ছাপিয়ে না । সমাজপতি মহাশয় অত্যন্ত আগ্রহের সহিত ইহা চাহিয়া পাঠাইয়াছেন—কেননা তাহার সত্যই ভাল লাগিয়াছে। —তুমি যদি সত্যই মনে কর এটা তোমাদের কাগজে ছাপার উপযুক্ত তাহলে হয়ত ছাপিতে মত দিতেও পারি, না হলে তুমি যে কেবল আমার মঙ্গলের দিকে চোখ রাখিয়া যাতে আমারটাই ছাপা হয় এই চেষ্টা করিবে তাহা কিছুতেই হইতে পরিবে না নিরপেক্ষ সত্য— এইটাই আমি সাহিত্যে চাই । এর মধ্যে খাতির চাই না । তা ছাড়া তোমাদের বিজুলাঙ্গ মত করিবেন না বলা যায় না। যদি আংশিক পরিবর্তন কেহ প্রয়োজন বিবেচনা করেন তাহা কিছুতেই হইতে পারিবে না, উহার একটা লাইনও বাদ দিতে দিব না। তবে, একটা কথা বলি—শুধু নাম দেখিয়া আর গোড়াটা দেখিয়া 5fặnsta nga Ffre Ri | Rif argā Ethics-tag student—Rēj student. Ethics বুঝি এবং কাহারও চেয়ে কম বুঝি বলিয়া মনে করি না। যাহা হোক ।

  • दिtछटालांज ब्राम्र

●%姆