প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:শরৎ সাহিত্য সংগ্রহ (একাদশ সম্ভার).djvu/৫২

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


*बं९-नांहेिछा-नरáइ দাড়াইয়া রহিল। প্রবল ঝড় যেমন করিয়া খড়-ফুটা খুলী-বালি উড়াইয়া লইয় যায়, উপেক্স ষে তেমনি করিয়া বাধা-বিঘ্ন ওজর-আপত্তি নিজের ইচ্ছামত উড়াইয়া লইয়া গেলেন, নিন্তব্ধ হইয়া দুইজনে তাই ভাবিতে লাগিলেন। বহুক্ষণেও যখন কোনও কথাও উঠিল না, তখন দিবাকর ধীরে ধীরে বলিল, এ-সব কি দিদি ? মহেশ্বরী মুখ না তুলিয়াই বলিলেন, সবই ত শুনলে । দিবাকর প্রশ্ন করিল, এত তাড়া কিসের জন্ত ? . মহেশ্বরী বলিলেন, শচীর বিয়ের বয়স উৰ্ত্তীর্ণ হয়ে যাচ্ছে এবং আগামী সমস্ত বছর অকাল । ইহার পরে জার কোনও কখ। দিবাকরের মাখায় আসিল না, কিন্তু মনে পড়িল, উপেক্স এতক্ষণ পত্র লিখিতেছেন এক একটু পরেই জরুরি পত্ৰ লইয়া চাকর ডাকঘরে ছুটিয়া যাইৰে । সে কোনও দিন বিবাহ করিবে না। এই তাহার জীবনের সঙ্কল্প ? এই সঙ্কল্প এমন অকস্মাৎ একটানে তাপিয়া যাইতেছে মনে হইবামাক্স সে অস্থির হইয়া উপেজের ঘরের অভিমুখে চলিয়া গেল। ঘরে ঢুকিতেই স্বরবালা তাহার অগ্রসন্ন মুখের পরে মাখার কাপড় টানিয়া আলমারির পাশে সরিয়া গেল। উপেন্দ্র টেবিলের কাছে কাগজ কলম লইয়া বসিয়াছিলেন, মুখ তুলিয়া জিজ্ঞাসা করিলেন, জাবার কি ? দিবাকর যাহ। বলিতে আসিয়াছিল, তাহ ঠিকমত ভাবিয়া দেখিবার সময়ও পায় নাই, এবং ওদিকে অঞ্চলের একপ্রাপ্ত আলমারির পাশে দেখা যাইতে লাগিল, সে চুপ করিয়া দাড়াইয়া রহিল । উপেক্স কহিলেন, কি রে ? দিবাকর কথা না কহিয়া আলমারির দিকে দৃষ্টি নিক্ষেপ করিল। উপেক্স সে ইঙ্গিত দেখিয়াও দেখিলেন না, বলিলেন, আমার সময় নেই দিব|দিবাকর কাছে সরিয়া আসিয়া মৃত্নশ্বত্বে কহিল, এত তাড়াতাড়ি কেন ? উপেন্দ্র বলিলেণ, ন, তাড়াতাড়ি নয়। এখন যেমন করে হোক প্রায় মাস-দুই সময় আছে—তোর পরীক্ষা হয়ে গেলে— তবে আজই চিঠি লেখার প্রয়োজন কি ? কিছুদিন পয়ে লিখলেও ত হয়। হতে পারে, কিন্তু কিছুদিন পরে লিখলে কি স্ববিধে হবে শুনি ? দিবাকর আস্তে আস্তে বলিল, ভেবে দেখা উচিত । উপেক্স বলিলেন, উচিত ৰৈ কি ! তুমি বিয়ের ভাবনা ভাবে, তোমার পরীক্ষার ভাবনা আমি ভাবি গে । কিন্তু এরুপ দায়িত্ব-গ্রহণের পূর্বে - ፀቖ\