প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:শরৎ সাহিত্য সংগ্রহ (ত্রয়োদশ সম্ভার).djvu/১৪০

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


শরৎ-সাহিত্য-সংগ্ৰহ নীচে হইতে হাত-মুখ ধুইয়া আসিয়া অপূৰ্ব্ব থাবার খাষ্টয়া সুপারি, এলাচ প্রভৃতি মুখে দিয়া হৃষ্টচিত্তে কহিল, এবার আমাকে ছুটি দিন, আমি বাসায় যাই । ভারতী মাথা নাড়িয়া বলিল, সেটি হবে না । তেওয়ারীকে খবর দিয়েচি ষে, অফিসের ফেরত কাল বিকালে আপনি বাসায় যাবেন এবং খবর নিয়েচি যে সে স্বস্ত দেহে, বহাল তবিয়তে ঘর আগলাচ্চে,—কোন চিন্তা নেই। কিন্তু কেন ? * ভারতী বলিল, কারণ সম্প্রতি আপনি তামাদের অভিভাবক। আজ মুমিত্রাদিদি অসুস্থ, নবতারা গেছেন অতুলবাবুকে সঙ্গে নিয়ে ওপারে, আপনাকে যেতে হবে আমার সঙ্গে । আপনার প্রতি প্রেসিডেন্টের এই আদেশ । ওই পুতি এনে রেখেচি, পরে নিয়ে চলুন । কোথায় যেতে হবে ? মজুরদের লাইনের ঘরে । অর্থাৎ, বড় বড় কারখানার ক্রোড়পতি মালিকের ওয়ার্কমেনদের জন্তে লাইনবন্দী যে সব নরককুণ্ড তৈরী করে দিয়েছে সেইখানে । আজ । রবিবারে ছুটির দিনেই সেখানে কাজ । অপূৰ্ব্ব জিজ্ঞাসা করিল, কিন্তু সেখানে কেন ? ভারতী উত্তর দিল, নইলে পথের দাবীর সত্যিকারের কাজ কি এই ঘরে হতে পারে? একটু হাসিয়া কহিল, আপনি এ-সভার মাতব্বর সভ্য, সরেজমিনে না গেলে ত কাজের ধারা বুঝতে পারবেন না অপূৰ্ব্ববাবু। চলুন, বলিয়া অপূর্ব আফিসের পোষাক ছাড়িয়া মিনিট পাচেকের মধ্যে প্রস্তুত হইয়া লইল । ভারতী আলমারী খুলিয়া কি একটা বস্তু লুকাইয় তাহার জামার পকেটে রাখিতে অপূৰ্ব্ব দেখিতে পাইয়া কহিল, ওটা কি নিলেন ? গাদা পিস্তল । - পিস্তল । পিস্তল কেন ? আত্মরক্ষার জন্তে । ওর পাশ আছে ? না | অপূৰ্ব্ব বলিল, পুলিশে যদি ধরে ত আত্মরক্ষা দু’জনেরই হবে। ক’বছর দেয় ? দেবে না,—চলুন ! অপূৰ্ব্ব নিশ্বাস ফেলিয়া বলিল, দুর্গ-শ্ৰীহরি। চলুন। বড় রাস্ত ধরিয়া উত্তরে বন্ধী ও চীনা পল্লী পার হইয়া বাজারের পাশ দিয়া i. Swee