প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:শরৎ সাহিত্য সংগ্রহ (ত্রয়োদশ সম্ভার).djvu/১৪৮

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


শরৎ-সাহিত্য-সংগ্ৰহ স্ত্রীলোকের হাতে মদের গেলাস ছিল, সে বোধ হয় তখনও পাকা হইয়া উঠে নাই, হয়ত অল্পদিন পূৰ্ব্বেই গৃহত্যাগ করিয়াছে, সে বা হাতে সজোরে নিজের নাক টিপিয়া ধরিয়া গেলাসটা মুখে ঢালিয়া দিয়া তক্তার ফাক দিয়া অপৰ্য্যাপ্ত থুথু ফেলিতে লাগিল । একজন পুরুষ তাড়াতাড়ি তাহার মুখে খানিকটা তরকারি গুজিয়া দিল। বাঙালী মেয়েমানুষকে চোখের স্বমুখে মদ খাইতে দেখিয়া অপূৰ্ব্ব যেন একেবারে শীর্ণ হইয়া গেল। কিন্তু সে আড়চোখে চাহিয়া দেখিল, এতবড় ভয়ঙ্কর বীভৎস দৃশ্বেও ভারতীৱ মুখের উপরে বিরুতির চিহ্ন মাত্র নাই। এসব তাহার সহিয়া গেছে। কিন্তু ক্ষণেক পরে গুহস্বামীর ফরমাসে টুনি যখন গান ধরিল, এই যমুনা সেই যমুনা—এবং পাশের লোকটা হারমোনিয়াম টানিয়া লইয়া খামোক একটা চাবি টিপিয়া ধরিয়া প্রাণপণে বেলো করিতে শুরু করিল, তখন এত ভার ভারতীর বোধ হয় সহিল না। সে ব্যস্ত হইয়া বলিয়া উঠিল, মিস্ত্রীমশায়, কাল আমাদের মিটিং—এ কথা বোধ হয় ভোলনি ? যাওয়া কিন্তু চাই-ই । চাই বই কি দিদিমণি ! এই বলিয়া কালাৰ্চাদ একপাত্র মদ গলায় ঢালিয়া দিল । ভারতী কহিল, ছেলেবেলায় পড়েচ ত খড় পাকিয়ে দড়ি করলে হাতী বাধা যায়। এক না হলে তোমরা কখনোও কিছু করতে পারবে না । কেবল তোমাদের ভালর জন্যই স্বমিত্রাদিদি কি পরিশ্রম করেচেন বল ত ! এ কথায় সকলে একবাক্যে সায় দিল । ভারতী বলিতে লাগিল, তোমরা ছাড়া কি এতবড় কারখানা একদিন চলে ? তোমরাই ত এর সত্যিকারের মালিক, এ তো সোজা কথা কালাচাঁদ, এ তোমরা না বুঝতে চাইলে হবে কেন ? সবাই বলিল, এ ঠিক কথা । তাহারা না চালাইলে সমস্ত অন্ধকার । ভারতী কহিল, অথচ, তোমাদের কত কষ্ট একবার ভেবে দেখ দিকি । যখন তখন বিনা দোষে সাহেবরা তোমাদের লাথি জুতো মেরে বার করে দেয়। এই পাশের ঘরেই দেখ, কাজ করতে গিয়ে পাঁচকড়ির হাত ভেঙেচে বলে আজ সে খেতে পায় না, তার ছেলে-মেয়ে দুটো ওষুধ-পথ্যির অভাবে মারা যাচ্চে। ঘর থেকে পর্য্যন্ত বড়সাহেব তাকে দূর করে দিতে চায় ! এই যে ক্রোর ক্রোর টাকা এরা লাভ করেচে সে কাদের দৌলতে ? অার তোমরা পাও কতটুকু ? এই যে সেদিন হামলালকে ছোটসাহেব ঠেলে ফেলে দিলে, আজও সে হাসপাতালে, এ তোমরা সহ করবে কেন ? একবার সবাই এক হয়ে দাড়িয়ে জোর করে বল ত, এ নির্ধ্যাতন আমরা আর সইব না, কেমন তোমাদের গায়ে হাত দিতে সাহস করে দেখি ! কেবল একটি বার তোমাদের সত্যিকার জোরটুকু তোমরা চেয়ে দেখতে শেখো—আর আমরা তোমাদের কাছে কিছুই চাইনে কালাটাদ। }\రి*