প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:শরৎ সাহিত্য সংগ্রহ (ত্রয়োদশ সম্ভার).djvu/২৪৩

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


পৰেৱ জাৰী छारे डीछे dणिबा कडे कब्रेिबारे क्रनिटउ रहेण । थोक्लिब ब्रा४ ७कथांना जांनांनी बांशण কিছুদিন হইতে বাধা ছিল, সেই স্থানটা নিঃশব্যে পার হইয়া ভারতী কৰা কছিল। बजिण, ७हे कबशिन cषट्क cषरक ८कवनि भरन श्'tउ, शांश, जबूरजब cषयन उण cनरे, তোমার তেমনি তল নেই। স্নেহ বল, ভালবাসা ৰল ; কিছুই তোমাতে ভর দিয়ে শক্ত হয়ে দাড়াতে পারে না। সবই ষেন কোথায় তলিয়ে চলে যায়। ডাক্তার বলিলেন, প্রথমতঃ সমূত্রের তল আছে, স্বতরাং, উপমা তোমার এ ক্ষেত্রে অচল । ভারতী কহিল, এই নিয়ে বোধ হয় তোমাকে একশ’বার বললাম যে, তুমি ছাড়া ছনিয়ায় আমার আর আপনার কেউ নেই,—তুমি চলে গেলে আমি দাড়াৰে কোৰায় ? কিন্তু এ কথা তোমার কানেই পৌঁছল না। আর পোঁছবে কি করে দাদা, হৃদয় ত নেই। আমি ঠিক জানি একবার চোখের আড়াল হলে ভূমি নিশ্চয় জামাকে ভুলে যাবে। ডাক্তার বলিলেন; না । তোমাকে নিশ্চয় মনে থাকবে। ভারতী প্রশ্ন করিল, কি আশ্রয় করে আমি সংসারে থাকবো ? - ডাক্তার বলিলেন, ভাগ্যবতী মেয়ের যা আশ্রয় করে থাকে। স্বামী, ছেলেগুলে, বিষয়-আশয়, ঘরদোর— ভারতী রাগ করিয়া বলিল, আমি যে অপূৰ্ব্ববাবুকে একান্তভাবেই ভালবেসেছিলাম এ সত্য তোমার কাছে গোপন করিনি ; তাকে পেলে একদিন যে আমার সমস্ত জীবন ধন্ত হয়ে যেতো এ কথাও তুমি জানো,—তোমার কাছে কিছু লুকানোও ৰায় না,— কিন্তু তাই বলে আমাকে তুমি অপমান করবে কিসের জন্তে ? ডাক্তার আশ্চর্ঘ্য হইয়া বলিলেন, অপমান! অপমান ত তোমাকে আমি এতটুকু করিনি ভারতী । সহসা অশ্র-আভাসে ভারতীর কণ্ঠ ভারী হইয়া উঠিল, কহিল, না, করনি বই কি ! ভূমি জানো কত শত-সহস্ৰ বাধা, তুমি জানো তিনি আমাকে গ্রহণ করতেই পারেন না,—তবুও তুমি এইসব বলবে ? - ভাক্তার ঈষৎ হাসিয়া কছিলেন, এই ত মেয়েদের দোব। তারা নিজের একদিন বা বলে, অপরে তাই আর একদিন উচ্চারণ করলেই তারা তেড়ে মারতে আগে । সেদিন সুমিত্রার কথায় বললে সে কাকে যেন একদিন পায়ের তলায় টেনে এনে ফেলৰে, জাজ আমি তারই পুনরাবৃত্তি করার কান্নায় গলা তোমার বঙ্গে এলো । ভারতী চোখ মুছিয়া বলিল, না, তুমি কখখনো এসব কৰা আমাকে বলম্বে পাষে মা । a ge woe-אסיצ