প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:শরৎ সাহিত্য সংগ্রহ (ত্রয়োদশ সম্ভার).djvu/২৫৮

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


শরৎ-সাহিত্য-সংগ্ৰহ শশী কছিল, প্রেসিডেন্ট আপনাকে একবার দেখা করতে বলেচেন। তিনি স্বয়াভায়ায় চলে যাচ্চেন। ডাক্তার বিশ্বয় প্রকাশ করিলেন না, তবু প্রশ্ন করিলেন, কবে যাবেন ? শশী কহিল, বললেন ত শীঘ্রই। তাকে লোক এসেচে নিতে । কথা ভারতীর কানে গেল, সে ফিরিয়া আসিয়া জিজ্ঞাসা করিল, সুমিত্রাদিদি কি সত্যই চলে যাবেন বলেচেন শশীবাৰু ? শশী বলিল, ই সত্যি। তার মায়ের খুড়োর অগাধ সম্পত্তি। সম্প্রতি মারা গেছেন—ইনি ছাড়া উত্তরাধিকারী আর কেউ নেই। র্তার না গেলেই নয় । ডাক্তার কছিলেন, না গেলেই যখন নয়, তখন যাবেন বই কি। শশী ভারতীর মুখের প্রতি চাহিয়া বলিল, অনেক খাবার আছে, ধাৰেন কিছু ? কিন্তু ভারতীর ইতস্ততঃ করিবার পূৰ্ব্বেই ডাক্তার সাগ্রহে বলিয়া উঠিলেন, নিশ্চয়, নিশ্চয়, - ঢল, কি আছে দেখিগে । এই বলিয়া তিনি শণীর হাত ধরিয়া একপ্রকার জোর করিয়া তাহাকে ঘরের ভিতর টানিয়া লইয়া গেলেন । যাবার পথে শশী আস্তে আস্তে বলিল, আর একটা খবর আছে ডাক্তার, অপুৰ্ব্ববার ফিরে এসেচেন। ভাক্তার বিস্ময়ে থমকিয়া দাড়াইয়া কছিলেন, সে কি শশী, কে বললে তোমাকে ? শণী কহিল, কাল বেঙ্গল ব্যাঙ্কে একেবারে মুখোমুখি দেখা । তার মা নাকি বড় পীড়িত । sግ শশী অতিশয়োক্তি করে নাই । ভিতরে প্রবেশ করিয়া দেখা গেল খাস্তবস্তুর অত্যন্ত বাহুল্যে ঘরের দক্ষিণ ধারটা একেবারেই ভারাক্রাপ্ত হইয়া রহিয়াছে। ছোটবড় ডেকচি, প্লেট, কাগজের ঠোঙা, মাটির বাসন পরিপূর্ণ করিয়া নানাবিধ আহার্ঘ্য জব্যসম্ভার দোকানদার ও হোটেলওয়ালার দল নিজেদের রুচি ও মঙ্গি মত ওপার হইতে এপারে অবিশ্রাম সরবরাহ করিয়া খুপাকার করিয়াছে—অভাব বা ক্রটি কিছুরই ঘটে নাই, ঘটিয়াছে কেবল সেগুলি উদারসাং করিবার লোকের । ডাক্তার ক্ষণকালমাত্র নিরীক্ষণ করিয়াই সোল্লাসে চীৎকার করিয়া উঠিলেন, তোফা ! ভোফা ! চমৎকার! শশী কি হিসেবী লোক দেখেচ ভারতী, কে কি থাৰে ন-ধাৰে जबख फ़ेिखा करब cशरथ८छ । बह९ जांक्र ! R8'r