প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:শরৎ সাহিত্য সংগ্রহ (ত্রয়োদশ সম্ভার).djvu/২৬৭

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ミ* এই নিশীথ রাত্রে মুমিত্রার আগমন সংবাদ যেমন অপ্রত্যাশিত তেমনি অগ্ৰীতিকর। ভারতী কুষ্ঠিত ও ত্রস্ত হইয়া উঠিল । ক্ষণকাল পরে সে প্রবেশ করিতে ভাক্তার সহজকণ্ঠে অভ্যর্থনা করিয়া কহিলেন, বোস । তুমি কি একলা এলে নাকি ? সুমিত্রা বলিল, ই । ভারতীর প্রতি চাহিয়া জিজ্ঞাসা করিল, ভালো আছে। छांब्रउँौ ? 授 - এই মিনিটখানেক সময়ের মধ্যেই ভারতী কত কি ষে ভাবিতেছিল তাহার সামা নাই । সেদিনকার মত আজিও যে সুমিত্রা তাহাকে গ্রাহ করিবে না ইহাই সে নিশ্চিত জানিত, কিন্তু শুধু এই কুশল প্রশ্নে নয়, তাহার কণ্ঠস্বরের স্নিগ্ধ কোমলতার ভারতী সহসা যেন চাদ হাতে পাইল। অহেতুক কৃতজ্ঞতায় অন্তর পরিপূর্ণ করিয়া বলিল, ভাল আছি দিদি। আপনি ভাল আছেন । আজ আর তাহাকে তুমি বলিয়া ভাকিতে ভারতীর সাহস হইল না । ই, আছি, বলিয়া জবাব দিয়া সুমিত্রা একধারে উপবেশন করিল। কথোপকথন বেশি করা তাহার প্রকৃতি নয়,—একটা স্বাভাবিক ও শাস্ত গাম্ভীর্ঘ্যের দ্বারা চিরদিনই সে ব্যবধান রাখিয়া চলিত, আজও সে রীতির ব্যত্যয় হইল না । ইহা প্রচ্ছন্ন ক্রোধ বা বিরক্তির পরিচায়ক নহে তাহা জানিয়াও কিন্তু ভাস্বতীর নিজ হইতে দ্বিতীয় প্রশ্ন করিতে ভরসা হইল না । * ডাক্তার কথা কছিলেন। বলিলেন, শণীর মুখে শুনলাম, তুমি প্রচুর বিষয়সম্পত্তির উত্তরাধিকারী হয়ে জাভায় ফিরে ষাচ্চ । সুমিত্রা কহিল, ই, আমাকে নিয়ে যাবার জন্ত লোক এসেচে । কবে ষাৰে ? প্রথম স্টিমারেই—শনিবারে । ডাক্তার একটুখানি হাসিয়া বলিলেন, যাক, এবারে তাহলে তুমি বড়লোক হলে । সুমিত্রা ঘাড় নাড়িয়া সায় দিল, কছিল, ই, সমস্ত পেলে তাই বটে। ডাক্তার বলিলেন, পাবে। এটর্ণির পরামর্শ ছাড়া কাজ করো না । আর, একটু সাবধানে থেকে । ধারা তোমাকে নিতে এসেছেন, তারা পরিচিত লোক ত ? স্বমিত্ৰা বলিল, ই, উীর বিশ্বাসী লোক, সকলকেই আমি চিনি । তাহলে ত কৰাই নেই, এই বলিয়া ডাক্তার মূখ ফিরাইয়া ভারতীকে লক্ষ্য করিয়া কি একটা বলিতে ৰাইতেছিলেন, হঠাৎ শশী কথা কলি ; বলিল, এ হল মন্দ নয় - ቁ¢ፄ هماس