প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:শরৎ সাহিত্য সংগ্রহ (ত্রয়োদশ সম্ভার).djvu/৩০৯

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


পৰেয় জাৰী डांब्रडैौ ! चांद्र बिहवन ? किरू उगवांन ७शंकू शबा करब्रटफन, बांइरदब्र बर्थिक्षण ছোট বড় প্রাচীরের বেড়া তুলে তার পৃথিবীকে আর সহজ কারাকক্ষে পৃথক করে রাখবার তিনি জো রাখেননি। উত্তর থেকে দক্ষিণে, পূৰ্ব্ব থেকে পশ্চিমে বতার দৃষ্টি ষায় বিধাতার রাজপথ একেবারে উন্মুক্ত হয়ে গেছে। একে রুদ্ধ করে রাখৰার চক্রান্ত মানুষের হাতের নাগাল ডিজিয়ে গেছে। এখন এক প্রান্ডের জয় পাত অপর প্রান্ডে ফুলিঙ্গ উড়িয়ে আনবেই আনবে ভারতী, সে তাওব দেশ-বিদেশের গণ্ডী মানবে না ! কিন্তু, এদিকে যে রূত্রের সত্যকার তাওব ঘরের বাহিরে তখন কি উন্মা মূৰ্ত্তিই ধারণ করিয়াছিল, ভিতর হইতে তাহ কেহই উপলব্ধি করে নাই। বিদ্যুতে, ঝঞ্চায়, প্লাবনে ও বজ্রাঘাতে সে যেন একেবারে প্রলয় গুরু হইয়া গিয়াছিল, এবং ডাক্তার অর্গল যুক্ত করিতেই এক ঝলক স্বতীয় বৃষ্টির ছাট ভিতরে ঢুকিয়া সকলকে ডিজাইরা আলো নিবাইয়া সমস্ত ওলট-পালট করিয়া ঘর ও বাহির চক্ষের পলকে অন্ধকারে একাকার করিয়া দিল । ডাক্তার ডাকিলেন, সরদারজী ] বাহির হইতে সাড়া আসিল, ইয়েস ডক্টর, রেডি। সকলে চমকিত হইল। এই দুঃসহ বায়ু ও মূষলধারে বৃষ্টি মাথায় পাতিয়া কেছ ষে এই স্বচীভেদ্য আঁধারে দাড়াইয়া নিশ্চল নিঃশব্দ প্রহরায় নিযুক্ত থাকিতে পারে এ কথা সহসা ষেন কেহ ভাবিতেই পারিল না । ডাক্তার রহস্তভরে কহিলেন, তাহলে, আলি এখন । এই বলিয়া বাহিরে পা বাড়াইবার সঙ্গে সঙ্গেই অপূৰ্ব্ব ব্যাকুল কণ্ঠে বলিয়া উঠিল, একদিন যে আমি প্রাণ পেয়েছিলাম একথা চিরদিন মনে রাখবো ডাক্তার। অন্ধকার হইতে জবাব আসিল, তুচ্ছ পাওয়ার ব্যাপারটাকেই কেবল বড় করে দেখলে, অপূৰ্ব্ববার, ষে দিলে তাকে মনে রাখলে না ? অপূৰ্ব্ব চীৎকার করিয়া কহিল, মনে ? এ জীবনে ভুলব না। এ ঋণ মরণ *ईTख श्रांबिं দূরে আঁধারের মধ্য হইতে প্রত্যুত্তর আসিল, তাই যেন হয়। প্রাধনা করি, সত্যকার দাতাকে যেন একদিন তুমি চিনতে পারো অপূৰ্ব্ববাৰু! সেদিন সব্যসাচীর খণ— কথার শেষটা আর শুনা গেল না, অস্ফুটধ্বনি বায়ুবেগে শূন্তে ভাসিয়া গেল। তাহার পরে ক্ষণকালের জন্য যেন কাহারও সংজ্ঞা রহিল না। অচেতন জড়মূৰ্ত্তির স্কার কয়েক মুহূৰ্ত্ত নিশ্চল থাকিয়া ভারতী অবস্থাৎ চকিত হইয়া উঠিল এরং দ্রুতবেগে উপরে উঠিয়া আসিতেই সবাই তাহার পিছনে ছুটয়া আসিল। সে ক্ষিপ্লহন্তে

  • Roe