প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:শরৎ সাহিত্য সংগ্রহ (ত্রয়োদশ সম্ভার).djvu/৩৪৪

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


সাহিত্য-সভার অধিবেশনে অভিভাষণ जांभांप्क थांणनांब्र थांब ७षांप्न थांक्षांन कटद्र नब्रष cणौब्रव शांन करब्रहइन । কিন্তু পাঁচ বৎসর আগে রবিবাবু এখানে দাড়িয়ে বলেছিলেন—সে জন্ত সঙ্কোচ ৰোধ করছি। আমি লিখে থাকি, কিন্তু বলতে আমি পারি না—সকলে সব কাজ পারে না। আমি কতকগুলি বই লিখেছি ; কিন্তু বস্তৃতা আমার কাছে বেশী প্রত্যাশা করবেন না । यांषि जांशिडिाक-कांtज कांद्दछहे जांश्रिडाब्र वियञ्च बलाहे श्रांभांब्र चांछांबिक । রাজা রামমোহন রায়ের সময় থেকে "হুতুম পেচার নক্সা প্রভৃতির মধ্যে দিয়ে বাঙলা সাহিত্য কেমন করে বড় হয়ে উঠল, সে ইতিহাস আমি ঠিক জানি না ; দীনেশবাৰু সে বিষয়ে ঠিক বলতে পারবেন। আমি শবৎসর পূৰ্ব্বে প্রথম সাহিত্যক্ষেত্রে দাড়াই। যমুনা’ বলে একটা কাগজ ছিল, তার গ্রাহক সংখ্যা মোটে বত্রিশ—কেউ তাতে লেখে না। আমি তখন বর্ণা থেকে এখানে এসেছিলাম। সম্পাদক বললেন- কেউ লেখা দিতে চায় না, তোমাকে লিখতে হবে । ( কেউ লেখা দিতে চায় না বলে আমায় লিখতে হবে, সেটা আমার পক্ষে খুব গৌরবের কথা নয়। ) বললুম—ছেলেবেলায় লিখিছি বটে, কিন্তু তার পরে তো লিখিনি। সম্পাদক বললেন—তাতেই হবে। তারপর বর্গ ফিরে গেলুম। ক্ৰমাগত টেলিগ্রামের পর টেলিগ্রাম পেয়ে লিখতে হ’লো। সেই থেকে এই দশবছরে এই বইগুলো লিখেছি। কিন্তু আগেই বলেছি—সাহিত্যের ইতিহাস বিশেষ জানি না। কিন্তু আধুনিক সাহিত্য যাকে বলা হয়, তা যখন রচনা করেছি ; তখন জানি না বললে সেটা বোধ হয় অতিরিক্ত বিনয় হয়ে পড়বে। যদি কিছু অপ্রিয় সত্য বলে ফেলি তা হলে ক্ষমা করবেন । আমি প্রথমেই দেখলুষ-ছোট ছোট গল্প বড় দরকার। রবিবাৰু আগে লিখে গেছেন তারপর আর তেমন কেউ লেখেননি। আমি লিখতে লাগলুম। সম্পাদক বললেন—দেখ, প্রেম-ট্রেম না। ও একবারে পুরানো হয়ে গেছে। ছনীতি না वांरक ७धन जब खांण गझ cजधं । जिथट्टणम । ॐांब्रां दणरजन-छांण झरबद्दश् । ক্ৰমশঃ সাহিত্যের মধ্যে যখন আসতে লাগলুম, দেখলুম-ছনীতি প্রচার ক'রো না ; প্রেমের গল্প লিখ না ; এ ক’রো না ; ও ক’রো না--এসৰ বললে তো চলবে না । फर्षन 'क्लबिशैन।' त्तक कब्रेि । cण दइँझै cदन् यनिक श्रङ्ग cणराश् ! क्षन जिथेि чрез