প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:শরৎ সাহিত্য সংগ্রহ (ত্রয়োদশ সম্ভার).djvu/৫৩

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ولا পরদিন সকালে কি ভাবিয়া যে অপূৰ্ব্ব পুলিশ-থানার দিকে পা বাড়াইয় দিল তাহা বলা শক্ত । চুরির ব্যাপার পুলিশের গোচর করিয়া যে কোন ফল নাই তাহা সে জানিত। টাকা আদায় হইবে না, সম্ভবতঃ চোর ধরা পড়বে না,—এ বিশ্বাসটুকু পুলিশের উপরে তাহার ছিল । কিন্তু ওই ক্রীশ্চান মেচ্ছ মেয়েটার প্রতি তাহার ক্রোধ ও বিদ্বেষের আর সীমা ছিল না। ভারতী নিজে চুরি করিয়াছে, কিংবা চুরিতে সাহায্য করিয়াছে এ বিধয়ে তেওয়ারীর মত নিঃসংশয় হইতে সে এখনও পারে নাই, কিন্তু তাহার শঠতা ও ছলন। তাহাকে একেবারে ক্ষিপ্ত করিয়া দিয়াছিল । জোসেফ সাহেবকে আর যে-কোণ দোষহ দেওয়া যাক, আপনাকে স্বম্পষ্ট করিবার পক্ষে শুরু হইতে কোন ক্রটি তাহার ধটয়াছে এ অপবাদ দেওয়া চলে না । তাঁহার শয়তনী নিরতিশয় ব্যক্ত, তাহার চাবুকের আস্ফালন দ্বিধাহীন, জড়িমাবঞ্জিত, প্রতিবেশীর প্রতি র্তাহার মনোভাবে কোথাও কোন হেঁয়ালী নাই, তাহার কণ্ঠ নিঃসঙ্কোচ, বক্তব্য সরল ও MBBBS BBB BBB BBB BBB BBB BB BBS BBB BBB DD BSBB কথায়, তাহাকে বুঝা যায়। কিন্তু এই মেয়েটির কথার ও কাজের যেন কোন উদ্দেশু খুজিয়া মিলে না । ক্ষতি সে যত করিয়াছে সেজন্তও ৩ত নয়, কিন্তু গোড় হইতে তাহার বিচিত্র আচরণ যেন অমুক্ষণ কেবল অপূর্ববর বুদ্ধকেহ উপহু,স করিয়া আসিয়াছে। রাগের মাথায় থানায় ঢুকিয়া শেষ পধ্যও সমস্ত কাহিনী পুলিশের কাছে বিবৃত করিতে পারিত কি না সন্দেহ, কিন্তু ততদূর গড়াইল না। পিছন হইতে ডাক শুনিল, এ কি অপূৰ্ব্ব নাকি ? এখানে ! অপূৰ্ব্ব ফিরিয়া দেখিল, সাধারণ ভদ্র বাঙালীর পোষাকে দাড়াহয় তাহদের পরিচিত নিমাইবাৰু। ইনি বাঙল দেশের একজন বড় পুলিশ কর্মচারী। অপূৰ্ব্বর পিতা হহার চাকরি করিয়া দেন, তিনিই ছিলেন ইহার মুরুব্বি । নিমাহবাৰু তাহাকে দাদা বলতেন এবং সেই সূত্রে অপূৰ্ব্বর। সকলেই ইহাকে নিমাইকাকা বলিয়া ডাকিত। স্বদেশী যুগে অপূৰ্ব্ব যে ধরা পড়িয়া শাস্ত ভোগ করে নাই, সে অনেকটা ইহার প্রসাদে । পথের মধ্যেই অপূৰ্ব্ব তাহাকে প্রণাম করিয়া নিজের চাকরির সংবাদ দিয়া জিজ্ঞাসা করিল, কিন্তু আপনি যে এদেশে ? - নিমাইবাৰু আশীৰ্ব্বাদ করিয়া কহিলেন, বাবা, কাচ ছেলে তুমি, তোমাকে এতটা দুরে ঘর-দোর মা-বোন ছেড়ে আসতে হয়েচে আর আমাকে হতে পারে না ! পকেট হইতে ঘড়ি বাহির করিয়া দেখিয়া কহিলেন, আমার সময় নেই, কিন্তু