প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:শরৎ সাহিত্য সংগ্রহ (দশম সম্ভার).djvu/৩৩৮

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ब्रि६-जांझुिखा-ज९dयंश् হিতের জন্য তোমার মুখে পরা এবং পায়ে দড়ি বেঁধে রাখি। ডোমকেও ডেকে বলিনে, বাপু, তুমি যখন ডোম তখন এর বেশী চলাফের তোমার মঙ্গলকর নয়, অতএব এই ডিঙ্গোলেই তোমার পা ভেঙে দেব । আমি বলি, যার ষা দাবী সে ষোল-আনা নিকৃ। আর ভুল করা যদি মানুষের কাজেরই একটা অংশ হয়, ত সে ভুল করে ত বিস্ময়েরই বা কি আছে! দুটো পরামর্শ দিতে পারি—কিন্তু মেরে-ধরে হাত-পা খোড়া করে ভাল তার করতেই হবে, এতবড় দায়িত্ব আমার নেই। অতখানি অধ্যবসায়ও নিজের মধ্যে খুঁজে পাইনে । বরঞ্চ মনে হয়, বাস্তবিক, আমার মত কুঁড়ে লোকের মত মানুষে মানুষের হিতাকাজক্ষাটা যদি জগতে একটু কম করে করত ত তারাও আরামে থাকত, এদেরও সত্যকার কল্যাণ হয়ত একটু-আধটু হবারও জায়গা পেত। দেশের কাজ, দেশের মঙ্গল করতে গিয়ে, এই কথাটা আমার তোমরা ভুলো না । আজ তোমাদের কাছে আমার আরও অনেক কথা বলবার ছিল । সকল দিক দিয়ে কি করে সমস্ত বাঙ্গলা জীর্ণ হয়ে আসচে, -দেশের যারা মেরুমজা সেই ভদ্র গৃহস্থ পরিবার কি করে কোথায় ধীরে ধীরে বিলুপ্ত হয়ে আসচে, সে আনন্দ নেই, সে প্রাণ নেই, সে ধৰ্ম্ম নেই, সে খাওয়া-পরা নেই ; সমৃদ্ধ প্রাচীন গ্রামগুলো প্রায় জনশূন্য,—বিরাট প্রাসাদতুল্য আবাসে শিয়াল-কুকুর বাস করে ; পীড়িত নিরুপায় মৃতকল্প লোকগুলো স্বারা আজও সেখানে পড়ে আছে, খাদ্যাভাবে জলাভাবে কি তাদের অবস্থা—এই সব সহস্র দুঃখের কাহিনী তোমাদের তরুণ প্রাণের সামনে হাজির করবার আমার সাধ ছিল, কিন্তু এবার আমার সময় হ’লো না । তোমরা ফিরে এস, তোমাদের অধ্যাপক যদি আমাকে ভুলে না যান ত আর একদিন cङtभां८द्र ८*ॉनांव {*

  • ১৩২৮ বঙ্গাদে পৌষ মাসে শিবপুর ইনষ্টিটিউটে পঠিত অভিভাষণ।

ॐ२४