প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:শরৎ সাহিত্য সংগ্রহ (দশম সম্ভার).djvu/৭৩

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ষোড়শী জমি আমার আছে, তাই তোরা ভাগ করে নে। চওঁীর খাজনা তোরা যা ইচ্ছে দিস, কিন্তু অসৎ পথে কখনো পা দিবিনে এই আমার সওঁ । ফকির । কিন্তু লোকে যে বলে— - সাগর। বলুক। কিন্তু মা জানলেই হ’লে সে বিশ্বাস আমরা কখনো ভাঙিনি জানো ফকিরসাহেব, আমাদের জন্যেই এককড়ি তার শক্র, আমাদের জন্যেই রায়মশায় তার দুশমন। অথচ, তারা জানেও না কার দয়ায় আজও তারা বেঁচে আছে । ফকির। কিন্তু আমাকে তোরা ধরে আনলি কেন ? সাগর। কেন ? শুনেচি মুসলমান হয়েও তুমি তার গুরুর চেয়েও বড় । তোমার নিষেধ ছাড়া মাকে কেউ আটকাতে পারবে না । ফকির। কিন্তু এতবড় অন্যায় নিষেধ আমি কিসের জন্যে করব সাগর । সাগর । কল্পবে মামুযের ভালোর জন্তে । ফকির । কিন্তু ষোড়শী ঘরে নেই । বেলা যায়, আমিও ত আর অপেক্ষা করতে পারি না। এখন আমি চললুম। 密 সাগর। পারবে না থাকতে ? করবে না নিষেধ ? কিন্তু তার ফল ভালো হবে না । ফকির। এ-সব কথা মুখেও এনে না সাগর । সাগর। মা-ও বলেন ও-কথা মুখে আনিস্নে সাগর। বেশ মুখে আর আনব নH– আমার মনের মধ্যেই থাক । [ ফবিরের প্রস্থান ] সাগর। সন্ন্যাসী ফকির তুমি, জানো না ডাকাতের বুকের জালা । আমাদের সব গেছে, এর ওপর মাও যদি ছেড়ে যায় আমরা বাকী কিছুই আর রাখব না । [ প্রস্থান ) [ নিৰ্ম্মল ও ষোড়শীর প্রবেশ ] ষোড়শী। ডেকে নিয়ে এলাম সাধে!• ছি, ছিঃ, কি দাড়িয়ে যা তা শুনছিলেন বলুন ত! দেবীর মন্দির, তার উঠোনের মাঝখানে জটলা করে কতগুলো কাপুরুষে মিলে বিচারের ছলনায় দু'জন অসহায় স্ত্রীলোকের কুৎসা রটনা করচে,—তাও আবার একজন মৃত, আর একজন অনুপস্থিত। আস্থন আমার ঘরে। দুয়ারে আসন পাতা ছিল, নিৰ্ম্মলকে সমাদর করিয়া তাহাতে বসাইয়া ষোড়শী নিজে অদূরে উপবেশন করিল ] যোড়শী। আপনি না-কি বলেচেন আমার মামলা-মোকদ্দমার সমস্ত ভার নেবেন। এ কি সত্যি ? -: