প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:শরৎ সাহিত্য সংগ্রহ (দ্বাদশ সম্ভার).djvu/২৪৯

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


শেষের পরিচয় সারদ বলিল, উনি জানেন, আমি সবকিছু সইতে পারি, কিন্তু ওঁর ঐ একটা বিন্দ্রপ কিছুতেই সন্থ করতে পারিনে ! এ জেনে-শুনে তবুও উনি আমাকে জমন করে বলেন । সারদা চক্ষু মুছিতে মুছিতে উঠিয়া গেল । রাখাল তারকের বসিবার ঘরে প্রবেশ করিয়া দেখিল, সেক্রেটারিয়েট টেবিলের সম্মুখের চেয়ারে উপবিষ্ট তারক মোকদ্দমার কাগজ-পত্ৰ দেখিতে অভিনিবিষ্ট। রাখালের জুতোর আওয়াজে অল্প মাথা তুলিয়া তাকাইতে গিয়া চকিত হইয়া বিক্ষিতকণ্ঠে বলিল, এ কি ! রাখাল যে ! টেবিলের কাছাকাছি একখানি চেয়ারে বসিতে বসিতে রাখাল বলিল, কেন, আসতে নেই নাকি ? থাকবে না কেন, আসো না বলেই তো আসায় আশ্চৰ্য্য হচ্চি । আসি তো প্রায়ই । তা জানি ; কিন্তু সে তো আমার কাছে নয়, অন্দর মহলে । রাখাল হাসিয়া বলিল, অন্দরেই ডাক পড়ে, তাই সেখানে আসি । তারক রহস্য তরল-কণ্ঠে কহিল, আজ কি সদর থেকে ডাক পেয়েচো না-কি ? না, আজ সদরকে আমারই প্রয়োজন । নিশ্চয় কোনও মামলার ব্যাপার নয় আশা করি । মামলাই বটে। দুনিয়ার কোন ব্যাপারটা মামলার অন্তর্গত নয় বলতে পারো ? তারক হাসিতে লাগিল । রাখাল বলিল, শুনলাম, বেশ ভালো-রকম প্র্যাকটিস হচ্ছে তোমার ! মৃদ্ধ ভ্ৰকুঞ্চিত করিয়া তারক বলিল, তোমাকে কে বললে ? যেই বলুক, কথাটা তে। সত্যিই। এবার ইতর জনদের মধ্যে মিটার বিতরণের ব্যবস্থা করো একদিন । তারক বলিল, পাগল হয়েচো তুমি। কোথায় প্র্যাক্টস ? এখন তো শুধু সিনিয়রের দরজায় ধর্ণ দিয়ে পড়ে থাক, আর তার ষত-কিছু খাটুনির বোঝা গাধার মত বওয়া । R রাখাল বলিল, তাই নাকি ? তা হলে বিমলবাবু ভুল বলেচেন বোধ হয় ? : তারক চকিত হইয়া বলিল, বিমলবাবু তোমাকে এ-কথা বলেচেন নাকি ? to র্তার সঙ্গে কবে দেখা হ’লে ? কি বলেচেন বল তো । তারকের কণ্ঠস্বরে জাগ্ৰহ १९१