প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:শরৎ সাহিত্য সংগ্রহ (দ্বাদশ সম্ভার).djvu/২৫

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


শেষের পরিচয় অতি নিরীহ মাহুৰ—ছেলে পড়াই, রাধি-বাড়ি খাই, বাসায় এসে গুয়ে পড়ি। ফুরসং. পেলে অবলা সবল নির্বিচারে বড়লোকের ফাই-ফরমাস খাটি—বক্শিশের আশা করিনে—সে-সব ভাগ্যবানদের জন্যে। নিজের কপালের দৌড় ভাল করেই জেনে রেখেচি–ওতে দুঃখ নেই, একরকম সয়ে গেছে। দিন মন্দ কাটে না, কিন্তু তাই বলে মল্লভূমি ঘেষে দাড়িয়ে সামায়-মামায় কুস্তি লড়িয়ে তার বেগ সংবরণ করতে পারবো না । শুনিয়া তারক হাসিয়া ফেলিল । রাখালকে সে যতটা হাবা-বোকা ভাবিত, দেখিল তাহা নয়। জিজ্ঞাসা করিল, দু-পক্ষেই মামা রয়েচে বলে মল্লযুদ্ধ বাধবে কেন ? রাখাল কহিল, তা হলে একটু খুলে বলতে হয়। মামামশায় আমাকে বাড়িটা ছাড়িয়েচেন, কিন্তু তার মায়াটা আজও ঘোচাতে পারেননি, কাজেই অল্প-সল্প খবর এসে কানে পৌছয়। শোনা গেল, ভগিনীপতির কন্যাদায়ে শু্যালকের আরামেই বেশী বিঘ্ন ঘটাচ্ছে—এ ঘটকালিও তার কীৰ্ত্তি ! স্বতরাং এ-ক্ষেত্রে আমাকে দিয়ে বিশেষ কিছু হবে না, এবং সম্ভবত: কাউকে দিয়েই না। পাকা-দেখা, আশীৰ্ব্বাদ, গায়ে-হলুদ পর্য্যন্ত হয়ে গেছে, অতএব এ বিবাহ ঘটবেই । তারক কহিল, অর্থাৎ, ওপক্ষের মামাকে কন্যার কাহিনী শোনাতেই হবে, এবং তার পরে ঘটনাট মুখে মুখে বিস্তারিত হতেও বিলম্ব ঘটবে না, এবং তার অবগুস্তাবী ফল ও মেয়ের ভালো-ঘরে আর বিয়েই হবে না। রাখাল বলিল, ফ্লাশঙ্কা হয় শেষ পৰ্য্যন্ত এমনই কিছু-একটা দাড়াবে। কিন্তু মেয়ের বাপ তো আজও বেঁচে আছেন ? না, বাপ বেঁচে নেই, শুধু ব্ৰজবাৰু বেঁচে আছেন ? তারক ক্ষণকাল স্থির থাকিয়া বলিল, রাখাল, চলো না একবার যাই, বাপট একেবারেই মরেচে, না লোকটার মধ্যে এখনো কিছু বাকী আছে, দেখে আসি গে। তুমি যাবে ? A. ক্ষতি কি ? বলবে ইনি পাত্রের প্রতিবেশী—অনেক কিছুই জানেন । রাখাল হাসিয়া বলিল, ভালো বুদ্ধি। প্রথমতঃ, সে সত্যি নয়, দ্বিতীয়তঃ, জেরার দাপটে তোমার গোলমেলে উত্তরে তাদের ঘোর সন্দেহ হবে তুমি পাড়ার লোক, ব্যক্তিগত শক্রতা-বশে ভাঙচি দিতে এসেচে। তাতে কাৰ্য্যসিদ্ধি তো হবেই না বরঞ্চ উন্টে ফল দাড়াবে। তাই তো! তারক মনে মনে আর একবার রাখালের সাংসারিক বুদ্ধির প্রশংসা করিল, বলিল, সে ঠিক। আমাদের জেরায় ঠকতে হবে। নতুন-মার কাছে আরও বেশী খবর নেওয়া উচিত ছিল। বেশ, আমাকে তোমার একজন বন্ধু বলেই পরিচয় দিও। X &