প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:শরৎ সাহিত্য সংগ্রহ (দ্বিতীয় সম্ভার).djvu/১১

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


শ্ৰীকান্ত আমার উপরে আরোপিত এই বাধনটা যে আমার পক্ষে সত্যকার বস্তু হইতেই পারে না, তাহা অনেক করিয়া নিজেকে বুঝাইতে লাগিলাম ; কিন্তু তথাপি মাকে র্তাহার এই প্রতিশ্রুতির ফাস হইতে অব্যাহিত না দিয়া, নিঃশবে সরিয়া পড়িবার কথাও কোনমতে ভাবিতে পারিলাম না। বোধ করি, এক উপায় ছিল, পিয়ারীকে বলা ; কিন্তু কিছুদিন পর্য্যস্ত এ সম্বন্ধেও মনস্থির করিতে পারিলাম না। অনেকদিন হইল, তাহার সংবাদও জনিতাম না। সেই পৌছান খবর ছাড়া আমিও আর চিঠি লিখি নাই, সেও তাহার জবাব দেওয়া ছাড়া দ্বিতীয় পত্র লিখে নাই। বোধ করি, চিঠিপত্রের ভিতর দিয়াও উভয়ের মধ্যে একটা যোগসূত্র থাকে, এ তার অভিপ্রায় ছিল না। অন্তত: তাহার সেই একটা চিঠি হইতে আমি এইরূপই বুঝিয়াছিলাম। তবুও আশ্চৰ্য্য এই যে, পরের মেয়ের জন্য ভিক্ষার ছলে একদিন যথার্থই পাটনায় আসিয়া উপস্থিত হইলাম। বাটতে প্রবেশ করিয়া নীচের বসিবার ঘরের বারান্দায় দেখিলাম, দুজন উদ্বীপরা দরোয়ান বসিয়া আছে । তাহারা হঠাৎ একটা শ্ৰীহীন অপরিচিত আগন্তুক দেখিয়া এমন করিয়া চাহিয়া রহিল যে, আমার সোজা উঠিয়া যাইতে সঙ্কোচ বোধ হইল। ইহাদের পূৰ্ব্বে দেখি নাই। পিয়ারীর সাবেক বুড়া দরোয়ানজীর পরিবর্তে কেন যে তাহার এমন দুজন বাহারে দরোয়ানের অবিশ্বক হইয়া উঠিল তাহা ভাবিয়া পাইলাম না। যাই হোক ইহাদের অগ্রাহ করিয়া উপরে উঠিয়া যাইব কিংবা সবিনয়ে অনুমতি প্রার্থনা করিব, স্থির করিতে না করিতে দেখি রতন ব্যস্ত হইয়া নীচে নামিয়া আসিতেছে। অকস্মাৎ আমাকে দেখিয়া সে প্রথমে অবাক হইয়া গেল। পরে পায়ের কাছে ঢিপ করিয়া একটা প্রণাম করিয়া বলিল, কখন এলেন ? এখানে দাড়িয়ে যে ? এইমাত্র আসচি রতন । খবর সব ভাল ? রতন ঘাড় নাড়িয়া বলিল, সব ভাল বাবু! ওপরে যান-আমি বরফ কিনে নিয়ে এখনি আসচি, বলিয়া যাইতে উদ্যত হইল । তোমার মনিবঠাকরুন ওপরেই আছেন ? আছেন, বলিয়া সে দ্রুতবেগে বাহির হইয়া গেল । - উপরে উঠিয়া ঠিক পাশের ঘরটাই বসিবার ঘর। ভিতর হইতে একটা উচ্চ হাসির শব্দ এবং অনেকগুলি লোকের গলা কানে গেল ! একটু বিস্মিত হইলাম। কিন্তু পরক্ষণে দ্বারের সম্মুখে আসিয়া অবাক হইয়া গেলাম। আগের বারে এ ঘরটার ব্যবহার হইতে দেখি নাই। নানাপ্রকার আসবাবপত্র, টেবিল, চেয়ার প্রভৃতি অনেক জিনিস একটা কোণে গাদ কবিয়া রাখা থাকিত, বড় কেহ এ ঘরে আসিত না। আজ দেখি, সমস্ত ঘরটা জুড়িয়া বিছানা । আগাগোড়া কাপেট পাত, তাহার &