প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:শরৎ সাহিত্য সংগ্রহ (দ্বিতীয় সম্ভার).djvu/৩৮৩

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


नद-विशांन ফিরিয়া আসা ৰে কত কঠিন জাদ তাহ জানিতেন। ৰাইবার পূৰ্ব্বে শৈলেশের মুখের প্রত্যেক কথাটি তাহার বুকে গাথা হইয়াছিল, উষা কোনদিন ৰেলে-সকল ৰিক্সত হইতে পারিবে, তিনি ভাৰিতেও পারিতেন না। বন্ধুর প্রতি শৈলেশের পিতা অপরিসীম অবিচার করিয়াছে, ফিরিয়া আসার পরে বিভা ঈর্ষাবশে বহুবিধ অপমান করিয়াছে এবং তাহার চূড়ান্ত করিয়াছে শৈলেশ নিজে তাহার যাবার দিনটিতে তথাপি হিন্ধু নারীরশিক্ষা ও সংস্কার, বিশেষউবার মধুবচরিত্রেরসহিতমিলাইয়া তাহার স্বামীগৃহ ত্যাগ করিয়া যাওয়াটা ক্ষেত্রমোহন কিছুতেই অম্বুমোদন করিতে পারিতেন না। এই কথা মনে করিয়া তাহার যখনই কষ্ট হইত, তখনই এই বলিয়া তিনি আপনাকে আপনি সাশ্বনা দিতেন যে, উষা নিজের প্রতি অনাদর অবহেলা সহিয়াছিল, কিন্তু স্বামী যখন তাহার ধৰ্ম্মাচরণে ঘা দিল, সে আঘাত সে সহিল না । বোধ করি এইজন্তই বহুদিন পরে একদিন যখন তাহার স্বামী-গৃহে ডাক পড়িল, তখন এতটুকু দ্বিধা, এতটুকু অভিমান করে নাই, নিঃশবে এবং নির্বিচারে ফিরিয়া জাসিয়াছিল। হিন্দ্র রমণীর এই ধৰ্ম্মাচরণ বস্তুটির সহিত সংস্কার-যুক্ত ও আলোক-প্রাপ্ত ক্ষেত্রমোহনের বিশেষ পরিচয় ছিল না। এখন নিজের বাড়ির সঙ্গে তুলনা করিয়া আর-একজনের বিশ্বাসের দৃঢ়তা, আপনাকে বঞ্চিত করিবার শক্তি দেখিয় তাহার নিজেদের সমস্ত সমাজটাকেই যেন ক্ষুদ্র ও তুচ্ছ মনে হইত। তিনি মনে মনে বলিতেন, এতখানি সত্যিকার তেজ ত আমাদের কোন মেয়ের মধ্যেই নাই। র্তাহার আশঙ্কা হইত, ৰুকি এই সত্যকারের ধৰ্ম্ম-বস্তুটাই তাহাদের মধ্য হইতে নিৰ্ব্বাসিত হইয়া গেছে। যে বিশ্বাস আপনাকে পীড়িত করিতে পিছাইয়া দাড়ায় না, শ্রদ্ধার গভীরতা মাহার ছুঃখ ও ত্যাগের মধ্যে দিয়া আপনাকে যাচাই করিয়া লয়, এ বিশ্বাস কই বিভার ? কই উমার ? অারও সে ত অনেককেই জানে, কিন্তু কোথায় ইহার তুলনা ? ইহারই অনুভূতি একদিকে সঙ্কোচ ও আর-একদিকে ভক্তিতে তাহার সমস্ত অন্তর ষেন পরিপূর্ণ করিয়া দিতে থাকিত । কারণ, এই কয়টা দিনের মধ্যেই স্বামীকে ষে উষা কতখানি ভালবাসিয়াছিল এ কথা ত তাহার অবিদিত ছিল না। আবার পরক্ষণেই যখন মনে হুইত, সমস্ত ভাসিয়া গিয়া এত বড় কাও ঘটিল কিনা শুধু একজন মুসলমান ভৃত্য লইয়া —যে আচার সে পালন করে না, বাটীর মধ্যে তাহারই পুনঃপ্রচলন একেবারে তাহাকে বাড়ি ছাড়া করিয়া দিল। অপরে যাই কেন না করুক, কিন্তু বৌঠাক্ষরুমকে শ্বরণ করিয়া ইহারই সঙ্কীর্ণ তুচ্ছতায় এই লোকটি যেন একেবারে বিস্ময় ও ক্ষোভে অভিভূত হইয়া পড়িলেন। উমা প্রশ্ন করিয়া মুখপানে চাহিয়াই ছিল, জবাব না পাইয়া আশ্চৰ্য্য হুইম্বা কছিল, ই দাদা, বললে না ? কি রে ? •qa Հնա-ՅՆ