পাতা:শরৎ সাহিত্য সংগ্রহ (দ্বিতীয় সম্ভার).djvu/৯২

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


শরৎ-সাহিত্য-সংগ্ৰহ অতিরিক্ত দিতে হয়। কারণ, মূল্যের দ্বারাই সমস্ত পরিশুদ্ধ হয়, শাস্ত্রের এই বচনার্থের যথার্থ তাৎপৰ্য্য হৃদয়ঙ্গম করিতে এবং এই শাস্ত্রবাক্যে অবিচলিত আস্থা রাখিতে আজ পৰ্য্যস্ত যদি কেহ পারিয়া থাকে, ত এই হিন্দুস্থানীরা —এ-কথা আমাদের স্বীকার করিতেই হইবে। ) * কিন্তু মনোহরবাবুর combined hand-কে আমি কেন ধমক দিতে যাইব, আর সেই বা কি জন্য আমার ধমক শুনিবে, তাহা ভাবিয়া পাইলাম না। এই হাগুটি মনোহরবাবুর মৃত্তন। এতকাল তিনি নিজের combined hand নিজেই ছিলেন —শুধু ডিসেন্টুির খাতিরে অল্পদিন নিযুক্ত করিয়াছিলেন। মনোহরবাবু বলিতে লাগিলেন, মশাই, আপনি কি সহজ লোক ! শহরগুদ্ধ লোক আপনার কথায় মরে বঁাচে, তা কি আর জানিনে ভাবচেন ! বেশী নয়, একটি ছত্র যদি লাটসাহেবকে লিখে দেন ত ওর চোঁদ বছর জেল হয়ে যাবে, সে আমি কি শুনিনি ? দিন ত ব্যাটাকে বেশ করে শাসিত করে । কথা শুনিয়া আমি যেন দিশেহারা হইয়া গেলাম। যে লাটসাহেবের নামটা পৰ্য্যন্ত শুনি নাই—তাহাকে, বেশী নয়, মাত্র একটা ছত্র লিখিলেই একটা লোকের চৌদ্দ বৎসর কারাবাসের সম্ভাবনা,—আমার এত বড় অদ্ভুত শক্তির কথা এত বড় বিজ্ঞ ব্যক্তির মুখে শুনিয়া কি যে বলিব, আর কি যে করিব, ভাবিয়া পাইলাম না। তথাপি তাহার বারংবার অমুযোগ ও পীড়াপীড়িতে অগত্যা সেই হতভাগ combined hand-কে শাসন করিতে রান্নাঘরে ঢুকিয়া দেখি, সে একটা অন্ধকূপের দ্যায় অন্ধকার ! সে আড়ালে দাড়াইয়া প্রভুর মুখে আমার ক্ষমতার বহর শুনিয়া যখন কাদ-কাদ হইয়া হাতজোড় করিয়া জানাইল যে, এ বাড়িতে ‘দেও আছে, এখানে সে কোনমতেই থাকিতে পারিবে না। কহিল, নানা প্রকারের ‘ছায়া রাত্রি দিন ঘরের মধ্যে ঘুরিয়া বেড়ায়। বাৰু যদি আর কোন বাড়িতে যান, ত সে অনায়াসে চাকরি করিতে পারে, কিন্তু এ বাড়িতে— যে অন্ধকার ঘর, তা ‘ছায়া'র আর অপরাধ কি ! কিন্তু ছায়ার জন্য নয়, একটা বিত্ৰ পচা গন্ধ চুকিয়া পৰ্য্যন্তই আমার নাকে লাগিতেছিল ; জিজ্ঞাসা করিলাম, এ দুৰ্গন্ধ কিসের রে ? combined hand কহিল, কোই চুহ-উহা সড়ল হোগা : চমকাইয়া উঠিলাম। চুহা কি রে? এ ঘরে মরে নাকি? جبی সে হাতটা উন্টাইয়া তাচ্ছিল্যভরে জানাইল যে, প্রত্যহ সকালে অন্ততঃ পাঁচ-ছয়ট করিয়া মরা ইদুর সে বাহিরের গলিতে ফেলিয়া দেয়। - কেরোসিনের ডিবা জালাইয়া অমুসন্ধান করা হইল, কিন্তু পচা ইদুরের সন্ধান Եվ)