প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:শরৎ সাহিত্য সংগ্রহ (নবম সম্ভার).djvu/২৩৭

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


C বেলা কহিল, তবে ? নীলিমা বলিল, তবে কি ? বলিয়াই হাসিয়া ফেলিয়া কহিল, কাজ-কৰ্ম্ম করব না, ধাক-দুঃখ অভাব-অভিযোগ থাকবে না, হরদম্ ঘুরে বেড়াবো এই কি মেয়েদের স্বাধীনতার মানদণ্ড নাকি ? স্বয়ং বিধাতার তো কাজের অবধি নেই, কিন্তু কেউ কি র্তাকে পরাধীন ভাবে নাকি ? এই সংসারে আমার নিজের খাটুনিই কি সামান্ত ? আণ্ডবাবু গভীর বিস্ময়ে মুগ্ধ-চক্ষে তাহার প্রতি চাহিয়া রছিলেন। বস্তুতঃ এই ধরণের কোন কথা এতদিন তাহার মুখে তিনি শোনেন নাই । নীলিমা বলিতে লাগিল, কমল বসে থাকতে তো জানে মা, তখন স্বামী-পুত্রসংসার নিয়ে সে কৰ্ম্মের মধ্যে একেবারে তলিয়ে যেতো—আনন্দের ধারার মত সংসার তার উপর দিয়ে বয়ে যেতো ও টেরও পেতো না । কিন্তু যেদিন বুঝতে স্বামীর কাজ বোঝা হয়ে তার ঘাড়ে চেপেচে, আমি দিব্যি করে বলতে পারি, কেউ একটাদিনও সে-সংসারে তাকে ধরে রাখতে পারত না । 岬 আপ্তবাবু আস্তে আস্তে বলিলেন, তাই মনে হয়। অদূরে পরিচিত মোটরের হর্নের আওয়াজ পাওয়া গেল। বেলা জানাল দিয়া মুখ বাড়াইয়া দেখিয়া কহিল, হুঁ, আমাদের গাড়ী। অনতিকাল পরে ভূত্য আলো দিতে আসিয়া কমলের আগমন-সংবাদ দিল । কয়দিন যাবৎ আগুবাবু এই প্রতীক্ষা করিয়াই ছিলেন, অথচ খবর পাওয়ামাত্র র্তাহীর মুখ অতিশয় মান ও গম্ভীর হইয়া উঠিল। এইমাত্র আরাম-কেদারায় সোজা হইয়া বসিয়াছিলেন, পুনরায় হেলান দিয়া শুইয়া পড়িলেন। ঘরে ঢুকিয়া কমল সকলকে নমস্কার করিল এবং আশুবাবুর পাশের চৌকিতে গিয়া বসিয়া পড়িয়া বলিল, গুনলুম আমার জন্য ভারি ব্যস্ত হযেচেন। কে জানতে আমাকে আপনারা এত ভালবাসবেন, তা হলে যাবার আগে নিশ্চয় একটা খবর দিয়ে বেতুম। এই বলিয়া সে র্তাহার সুপরিপুষ্ট শিথিল হাতখানি সস্নেহে নিজের হাতের মধ্যে টানিয়া লইল । আপ্তবাবুর মুখ অন্যদিকে ছিল, ঠিক তেমনিই রহিল, একটি কথারও উত্তর দিতে পারিলেন না। কমল প্রথমে মনে করিল তিনি সম্পূর্ণ স্থস্থ হইবার পূর্বেই সে চলিয়া গিয়াছিল এবং এতদিন কোন খোজ লয় নাই—তাই অভিমান। তাহার মোটা আঙুলগুলির মধ্যে নিজের চাপার কলির মত আঙুলগুলি প্রবিষ্ট করাইয়া দিয়া কানের কাছে মুখ আনিয়া চুপি চুপি কহিল, আমি বলচি আমার দোষ হয়েচে, আমি ঘাট মানচি । &&ፃ 3="R3