প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:শরৎ সাহিত্য সংগ্রহ (নবম সম্ভার).djvu/২৫৩

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


শেষ প্রশ্ন কমল হাসিমুখে কহিল, না, শুধু সেদিন ছিল কাপড়টা শাদা, আজ হয়েচে হলদে। হরেক্স বলিল, ওটা উচ্চতর ভূমিতে আরোহণের বাহিক ঘোষণামাত্র, আর কিছু নাম ও vকাশীধাম থেকে সদ্য-প্রত্যাগত, ঘণ্টা-দুয়ের বেশি নয়। ক্লান্ত, তদুপরি ও তোমার প্রতি প্রসন্ন নয় ; তথাপি আমি আসচি শুনে ও আবেগ সংবরণ করতে পারলে না। ওটা আমাদের ব্রহ্মচারীদের মনের ঔদার্য্য, আর কিছু না । এই বলিয়া সে ঘরের মধ্যে উকি মারিয়া কহিল, এই যে ! অার একটি নৈষ্টিক ব্রহ্মচারী পূৰ্ব্বাহেই সমুপস্থিত। যাক, আর আশঙ্কার হেতু নেই, আমার আশ্রমটি ত ভাঙচে, কিন্তু আর একটা গজিয়ে উঠল বলে। এই বলিয়া সে ভিতরে প্রবেশ করিল এবং দ্বিতীয় চৌকিটা সতীশকে দেখাইয়া দিয়া বলিল, ব'সো ; এবং নিজে গিয়া খাটের উপর বেশ করিয়া জাকিয়া বসিল । কমল দাড়াইয়া, গৃহে তৃতীয় আসন নাই দেখিয়া সতীশ বসিতে দ্বিধা করিতেছিল ; হরেন্দ্র বুঝে নাই তাহা নয়, তবুও হরেন্দ্র সহস্তে কহিল, ব’সো হে সতীশ, জাত যাবে না। কাণী-ফেরত যত উচুতেই উঠে থাকে, তার চেয়েও উচু জায়গা সংসারে আছে এ-কথাটা ভুলো না । o না, সেজন্য নয়, বলিয়া সতীশ অপ্রতিভ হইয়া বসিয়া পড়িল । তাহার মুখ দেখিয়া কমল হাসিল, বলিল, খোচ দেওয়া আপনার মুখে সাজে না হরেন্দ্রবাবু। আশ্রমের প্রতিষ্ঠাতও আপনি, মোহান্ত মহারাজও আপনি। ওঁরা বয়সেও ছোট, পাণ্ডাগিরিতেও খাটা। ওঁদের কাজ শুধু আপনার উপদেশ ও আদেশ মেনে চলা, সুতরাং— y হরেন্দ্ৰ কহিল, সুতরাংটা সম্পূর্ণ অনাবশ্বক। আশ্রমের প্রতিষ্ঠাত হয়ত আমিই, কিন্তু মোহান্ত ও মহারাজ হচ্চেন দুই বন্ধু সতীশ ও রাজেন। একজনের কাজ আমাকে উপদেশ দেওয়া এবং অন্যের কাজ ছিল সাধ্যমত আমাকে না মেনে চলা । একজনের ত পাত্তা নেই, অন্যজন ফিরে এলেন ঢের বেশি তত্ত্ব-সঞ্চয় করে ; ভয় হচ্চে ওর সঙ্গে সমান তালে পা ফেলে চলতে হয়ত আর পেরে উঠবো না। এখন ভাবনা কেবল অৰ্দ্ধ-অভুক্ত ছেলের পাল নিয়ে। কাশী কাঞ্চী ঘুরিয়ে সেগুলোকেও ফিরিয়ে এনেচে । ইতিমধ্যে আচারনিষ্ঠার যে লেশমাত্র ক্রটি ঘটেনি তা তাদের পানে চেয়েই বুঝেচি; শুধু ক্ষোত এই যে, আর একটুখানি চেপে তপস্যা করালে ফিরে আসার গাড়ীভাড়াটা আমার আর লাগতো না। কমল ব্যথার সহিত প্রশ্ন করিল, ছেলেরা বুঝি খুব রোগ হয়ে গেছে ? ছরেজ কছিল, রোগ | আক্ৰম-পরিভাষায় হয়ত তার কি-একটা নাম আছে— সতীশ জানতেও পারে, কিন্তু আধুনিককালের আঁকা শুক্রচার্য্যের তপোবনে কচের ২৪৩ لاعسطس نهج