প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:শরৎ সাহিত্য সংগ্রহ (নবম সম্ভার).djvu/৩০১

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


স্বামী মনে মনে বললুম, পোড়ারমুখী, এতদিন কি তুই শুধু আমার মাথা খেতেই চোখ বুজে ঘুমুচ্ছিলি ? * মায়ের ডাকাডাকিতে কাপড় ছেড়ে কাছে এসে বসলুম। সে আমাকে খুটিয়ে দেখে বললে, মেয়ে পছন্দ হয়েচে, এখন দিন স্থির করলেই হ’ল । মায়ের চোখ দুটিতে জল টল্‌ টল্‌ করতে লাগল, বললেন, তোমার মুখে ফুলচন্দন পড়ুক মা, আর কি বলব। মামা শুনে বললেন, এনট্রান্স ? তবে বলে পাঠা, এখন বছর-দুই সন্ধুর কাছে ইংরিজি পড়ে যাক, তবে বিয়ের কথা কওয়া যাবে। মা বললেন, তোমার পায়ে পড়ি দাদা, অমত ক’রে না, এমন সুবিধে আর পাওয়া যাবে না। দিতে-থুতে কিছু হবে না— মামা বললেন, তা হলে হাত-পা বেঁধে গঙ্গায় দিগে যা, সেও এক পয়সা চাইবে না। মা বললেন, পনেরয় পা দিলে যে— 劇 মামা বললেন, তা ত দেবেই ; পোনর বছর বেঁচে রয়েচে যে ! মা রাগে দুঃখে কঁাদ কঁাদ হয়ে বললেন, তুমি কি ওর তবে বিয়ে দেবে ন দাদা ? এর পরে একেবারেই পাত্র জুটবে না। মামা বললেন, সেই ভয়েত আগে থেকে ওকে জলে ফেলে দিতে পারা যায় না ! মা বললেন, ছেলেটিকে একবার নিজের চোখে দেখে এসো না দাদা, পছনা না হয় না দেবে। মামা বললেন, সে ভাল কথা। রবিবার যাব বলে চিঠি লিখে দিচ্চি । ভাঙচির ভয়ে কথাটা মা গোপনে রেখেছিলেন এবং মামাকেও সাবধান করে দিয়েছিলেন । তিনি জানতেন না, এমন চোখ-কানও ছিল যাকে কোন সতর্কতা ফাকি দিতে পারে না । বাগানে একটুকরো শাকের ক্ষেত করেছিলুম। দিন-দুই পরে দুপুরবেলা একটা ভাঙা খুনতি নিয়ে তার ঘাস তুলচি, পায়ের শব্দে মুখ ফিরিয়ে দেখি, নরেন। তার সে-রকম মুখের চেহারা অনেকদিন পরে আর একবার দেখেছিলুম সত্যি, কিন্তু আগে কখনও দেখিনি। বুকে এমন একটা ব্যথা বাজল যা কখন কোনদিন পাইনি। সে বললে, আমাকে ছেড়ে কি সত্যিই চললে ? কথাটা বুঝেও বেঙ্গ বুঝতে পারলুম না । বলে ফেললুম, কোথায় ? সে বললে, চিতোর। , 轟 २&> ఇూ-రిగి