প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:শরৎ সাহিত্য সংগ্রহ (নবম সম্ভার).djvu/৩১৪

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


শরৎ-সাহিত্য-সংগ্ৰহ একেবারে বুকের কাছে টেনে নিয়ে হাত দিয়ে জোর করে আমার মুখ তুলে ধরে বললেন, যারা ভগবান মানে, তারা কি বলে জান ? তার বলে, স্বামীর কাছে কিছুতেই মিথ্যে বলতে নেই। (f আমি বললুম, কিন্তু যারা ভগবান মানে না তারা বলে, কারও কাছেই মিথ্যে বলতে নেই। স্বামী হেসে বললেন, বটে ! কিন্তু তাই যদি হয়, অতবড় মিখ্যে কথাটা কাল কি করে মুখে আনলে বল ত ? কি করে বললে ভগবান তুমি মানো না ? হঠাৎ মনে হ’ল, এত আশা করে কেউ বুঝি কখনো কারও সঙ্গে কথা কয়নি। তাই বলতে মুখে বাধতে লাগল, কিন্তু তৱ ত পোড়া অহঙ্কার গেল না, বলে ফেললুম, ভগবান মানি বললেই বুঝি সত্য কথা বলা হ’ত ? - আমাকে আটকে রাখলে কেন ? আর কোন কথা আছে ? তিনি মানমুখে আস্তে আস্তে বললেন, আর একটা কথা, মায়ের কাছে আজ মাপ চেয়ো । আমার সর্বাঙ্গ রাগে জলে উঠল ; বললুম, মাপ চাওয়াটা কি ছেলেখেলা, না তার কোন অর্থ আছে ? স্বামী বললেন, অর্থ তার এই যে, সেটা তোমার কর্তব্য। বললুম, তোমাদের ভগবান বুঝি বলেন, যে নিরপরাধ, সে গিয়ে অপরাধীয় নিকট ক্ষমা চেয়ে কৰ্ত্তব্য করুক ? স্বামী আমাকে ছেড়ে দিয়ে আমার মুখের পানে খানিকক্ষণ চুপ করে চেয়ে রইলেন। তার পর ধীরে ধীরে বললেন, ভগবানের নাম নিয়ে তামাসা করতে নেই, এ-কথা ভবিষ্ণুতে কোনদিন আর যেন মনে করে দিতে আমায় না হয় । আমি তর্ক করতে ভালবাসিনে—মায়ের কাছে মাপ চাইতে না পার, তার সঙ্গে জার কখনও বিবাদ করতে যেও না । বললুম, কেন, শুনতে পাইনে ? তিনি বললেন, না। নিষেধ করা আমার কৰ্ত্তব্য, তাই নিষেধ করে দিলুম। এই বলে তিনি বাইরে যাবার জন্তে উঠে দাড়ালেন। আমি আর সইতে পারলুম না, বললুম, কর্তব্যজ্ঞানটা তোমাদের দিএতু বেশি, সে কি আর কারও নেই? আমিও ত মানুষ, বাড়ির মধ্যে আমারও ত একটা কর্তব্য আছে। তা যদি তোমাদের ভাল না লাগে আমাকে বাপের বাড়ি পাঠিয়ে দাও। থাকলেই বিবাদ হবে, এ নিশ্চয় বলে দিচ্ছি। ళిe8