প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:শরৎ সাহিত্য সংগ্রহ (পঞ্চম সম্ভার).djvu/২৬৭

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


দর্পচূর্ণ ইন্দু অতিশয় রুক্ষস্বরে বলিল, তোমার বাবা কি পৃথিবীমৃদ্ধ লোকের কাছে দেনা করে গেছেন? এ শোধ করবে কে? তুমি ? কি করে করবে শুনি ? - এতগুলো প্রশ্নের এক নিশ্বাসে জবাব দেওয়া যায় না। ইন্দু নিজেও সেজন্য অপেক্ষা করিয়া রহিল না—তৎক্ষণাং কহিল, বেশ ত, তোমার বাবা না হয় হঠাৎ মারা গেছেন, কিন্তু তুমি ত হঠাৎ বিয়ে করনি। বাবাকে এ-সব ব্যাপার তোমার ত জানান উচিত ছিল । আমাকে গোপন করাও ত কর্তব্য হয়নি। লোকের মুখে শুনি, তুমি ভারী ধৰ্ম্মভীরু লোক, বলি, এ-সব বুঝি তোমার ধৰ্ম্মশাস্ত্রে লেখে না ? বলিয়া ঠিক যেন সে যুদ্ধ ঘোষণা করিয়া স্বামীর মুখপানে চহিয়া রহিল। কিন্তু হায় রে, এতগুলো স্বতীক্ষ বাণ যাহার উপর এমন নিষ্ঠুরভাবে বর্ধিত হইল, ভগবান তাহাকে কি নিরস্ত্র, কি নিরুপায় করিয়াই সংসারে পাঠাইয়াছিলেন ! কাহাকেও কোন কারণেই প্রতিঘাত করিবার সাধাটুকুও তাহার ছিল না, শুধু সাধ্য ছিল সহ করিবার। আঘাতের সমস্ত বেদনাই তাহার নিজের মধ্যে পাক থাইয়া, অত্যন্ন সময়ের মধ্যে স্তব্ধ হইয়া যাইত ; কিন্তু সেই স্বল্প সময়টুকু আজ তাহার মিলিল না। শস্তুবাবুর অত্যুগ্র কথার জালা কণামাত্র শাস্ত হইবার পূৰ্ব্বেই ইন্দু তাহাতে এমন ভীষণ তীব্র জালা সংযোগ করিয়া দিল যে, তাহারই অসহ দহনে আজ সেও প্রত্যুত্তরে একটা কঠোর কথাই বলিতে উদ্যত হইয়া উঠিল ; কিন্তু শেষ রক্ষা করিতে পারিল না। অক্ষমের নিষ্ফল আড়ম্বর মাথা তুলিয়াই ফাটিয়া ভাঙ্গিয়া পড়িল। শুধু ক্ষীণশ্বরে বলিল, বাবার সম্বন্ধে তোমার কি এমন করে বলা উচিত ? - —না—উচিত—নয়—কিন্তু আমার উচিত-অনুচিতের কথা তোমাকে মীমাংসা করে দিতে ত বলিনি। কেন তোমাদের সমস্ত ব্যাপার বাবাকে খুলে বলনি ? আমি কিছুই গোপন করিনি ইন্দু। তা ছাড়া, তিনি বাবার বাল্যবন্ধু ছিলেন, নিজেই সমস্ত জানতেন । তা হলে বল সমস্ত জেনে-শুনেই বাবা আমাকে জলে ফেলে দিয়েচেন ! অসহ ব্যথায় ও বিস্ময়ে নরেন্দ্র স্তম্ভিত হইয়া চাহিয়া থাকিয়া শির নত করিল। স্ত্রীর এই ক্রোধ যথার্থই সত্য কিংবা কলহের ছলনা মাত্র, হঠাৎ সে যেন ঠাহর করিতে পারিল না । এখানে গোড়ার কথা একটু বলা আবশ্বক। এক সময়ে বহুকাল উভয় পরিবার পাশাপাশি বাস করিয়াছিলেন এবং বিবাহটা সেই সময়েই একরূপ স্থির হইয়াছিল। কিন্তু হঠাৎ এক সময়ে ইদুর পিতা নিজের মত-পরিবর্তন করিয়া, মেয়েকে একটু অধিক বয়স পর্য্যস্ত অবিবাহিত রাখিয়া লেখাপড়া শিথাইতে মনস্থ করায় বিবাহ- , সম্বন্ধও ভাঙ্গিয়া যায়। কয়েক বর্ষ পরে ইন্দুর আঠারো বৎসর বয়সে আবার যখন 象曾>